বিজ্ঞাপন

আরও উৎসাহ পাবে মেড ইন বাংলাদেশ ব্র্যান্ডিং

June 9, 2022 | 7:31 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ‘মেড ইন বাংলাদেশ ব্র্যান্ডিং’কে আরও উৎসাহ দেওয়ার প্রস্তাব এসেছে। এ ক্ষেত্রে বেশকিছু সুবিধা দেওয়া প্রস্তাব করা হয়েছে প্রস্তাবিত নতুন বাজেটে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট উপস্থাপনের সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ তথ্য তুলে ধরেন। ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, দেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম উৎস রফতানি বাণিজ্য। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনের ক্ষেত্রে রফতানি বাণিজ্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আমাদের জিডিপি’তে রফতানি খাতের অবদান বাড়ানোর লক্ষ্যে গত অর্থবছরে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ পণ্য ও সেবাকে দীর্ঘ মেয়াদি কর প্রণোদনা প্রদান করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী বাজেট বক্তৃতায় বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ব্র্যান্ডকে গ্লোবাল ব্র্যান্ডে পরিণত করার লক্ষ্যে রফতানির নতুন ক্ষেত্র তৈরি এবং পণ্যের বৈচিত্র্যকরণ ও নতুন বাজার তৈরির উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন। এছাড়াও আধুনিক অর্থনীতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে পণ্যের পাশাপাশি সেবা রফতানিকে প্রাধান্য দিতে হবে। এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে সেবা রফতানিকে রফতানি হিসেবে সংজ্ঞায়িত করার প্রস্তাব করছি।

মুস্তফা কামাল বলেন, বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজ কর্তৃক বহির্বিশ্বে সেবা প্রদানের বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রায় ব্যাংকিং চ্যানেলে আনীত আয়কে ২০৩০ সাল পর্যন্ত করমুক্ত করার প্রস্তাব করছি। এসব প্রস্তাব গৃহীত হলে সেবা রফতানি খাতকে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে একটি সম্ভামনাময় শিল্প হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, চলতি অর্থবছরে ‘মেড ইন বাংলাদেশ ব্র্যান্ডিং’য়ে কর প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন-

বিজ্ঞাপন

আরও উৎসাহ পাবে মেড ইন বাংলাদেশ ব্র্যান্ডিং

এর আগে, বিকেল ৩টায় অধিবেশন শুরু হলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের জন্য অর্থমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান। অর্থমন্ত্রী সংসদে উপস্থিত রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে এই বাজেট উপস্থাপনের অনুমতি প্রার্থনা করেন। রাষ্ট্রপতি অনুমতি দিলে অর্থমন্ত্রী এই বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন দেওয়া হয়। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর ওই প্রস্তাবে সই করেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

আরও পড়ুন-

 

 

সারাবাংলা/ইএইচটি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন