বিজ্ঞাপন

সালমান খানকে প্রাণে মারার চেষ্টা! অল্পের জন্যই রক্ষা

June 11, 2022 | 5:28 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

কয়েকদিন আগেই খুনের হুমকির চিঠি পেয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা সালমান খান এবং তার বাবা সেলিম খান। সেই হুমকি চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে মুম্বাইয়ের বান্দ্রা থানায় একটি এফআইআর দায়ের করা হয়। মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। কোনওরকম ঝুঁকি না নিয়ে সালমানের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়। কিন্তু কেউ তাকে ফোন করে হুমকি দেয়নি প্রাণে মারবার, কারুর সঙ্গে তার শক্রুতা নেই- মুম্বাই পুলিশকে দেওয়া বয়ানে এমনটা জানিয়েছেন সালমান খান। তবে ভাইজানের সুরক্ষায় কোনও খামতি রাখছে না মুম্বাই পুলিশ। জানা গেছে, শুধু প্রাণে মারার হুমকি চিঠিই নয়, শার্পশুটার দিয়ে অভিনেতাকে মেরে ফেলবার ছক কষেছে কুখ্যাত গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই, এমনটাই উঠে এল তদন্তে। পাঞ্জাবি গায়ক সিধু মুসেওয়ালা খুনের মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত লরেন্স বিষ্ণোই, আপতত তিহার জেলে বন্দি সে। কিন্তু তাতে কী! জেলে বসেই অন্ধকার দুনিয়ার রাজপাট চালাচ্ছে সে। এই গ্যাংয়ের পরবর্তী টার্গেট সালমান খান, তেমনটাই সূত্রের খবর।

বিজ্ঞাপন

গত রবিবারই হুমকি চিঠি পেয়েছেন দাবাং খান। উড়ো চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘সিধু মুসেওয়ালার মতোই পরিণতি হবে, তোমার’। প্রাণে মারার এই হুমকি সলমনকে দিয়েছে লরেন্স বিষ্ণোইয়ের গ্যাং, এমনটাই ধারণা পুলিশের।

বিজ্ঞাপন
সালমান খানকে প্রাণে মারার চেষ্টা! অল্পের জন্যই রক্ষা
সালমান খান এবং তার বাবা সেলিম খান

পুলিশের দাবি, পরিকল্পনা মতো সলমনের ‘গ্যালাক্সি’ অ্যাপার্টমেন্টে রেইকিও চালিয়েছিল গ্যাংস্টারের দলবল। দিনেদুপুরেই সালমানকে শুট করবার প্রস্তুতি সেরেছিল। সালমান মুম্বায়ে থাকলে সকালে সাইকেল চালিয়ে ঘুরে বেড়ান প্রকাশ্য রাস্তায়। সেইসময় নিরাপত্তারক্ষীরাও থাকে না সঙ্গে, সেই সময়েই সালমানকে হত্যার জন্য বেছে নেয় অপরাধীরা। হকি স্টিকের মধ্যে ছোট্ট অস্ত্র লুকিয়ে সালমানের উপর হামলায় ছক তৈরি হয়, কিন্তু শেষ মুহূর্তে ওই প্ল্যান ভেস্তে যায় শার্পশুটারের। সামনে থেকে এক নিরাপত্তারক্ষীকে হেঁটে আসতে দেখে ধরা পড়বার ভয়ে পালিয়ে যায় সে। প্রাথমিক তদন্তে এমনটাই জানতে পেরেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

যদিও পুলিশি জেরায় সালমানকে হুমকি চিঠি পাঠানো বা প্রাণে মারার ছক কষার কথা অস্বীকার করেছে লরেন্স বিষ্ণোই। এর আগে ২০১৮ সালে সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরাতেই সালমানকে প্রাণে মেরে ফেলবার হুমকি দিয়েছিল এই কুখ্যাত গ্যাংস্টার। রাজস্থানের এই শার্পশুটারের দীর্ঘদিনের টার্গেট সালমান খান।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত প্রতিদিন প্রাতঃভ্রমণে বেরোন সালমান খানের বাবা সেলিম খান। রোববারও তার অন্যথা হয়নি। সকালে হাঁটাহাঁটির মাঝে একটি জায়গায় বসে বিশ্রাম নেন তিনি। ওই জায়গাতেই হুমকি চিঠিটি পাওয়া গিয়েছে। চিঠিতে কারও নামোল্লেখ নেই। ওই চিঠিতে সালমান খান এবং তার বাবাকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়। চিঠিতে লেখা হয়, ‘সিধু মুসেওয়ালার মতো পরিণতি হবে’।

এদিকে, কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চায় না মুম্বাই পুলিশ, তাই আঁটোসাটো করা হয়েছে বলিউড ভাইজানের নিরাপত্তা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এক উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘সালমান খানের নিরাপত্তা সার্বিকভাবে বাড়ানো হয়েছে। তার অ্যাপার্টমেন্টের চারপাশেও ২৪ ঘণ্টা পুলিশি টহল থাকবে, যাতে রাজস্থানের এই গ্যাং (বিষ্ণোইদের গ্যাং) কিছু করতে না পারে।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন