বিজ্ঞাপন

‘হয়তো আমি কিছুটা দুর্ভাগা’

June 12, 2022 | 9:08 pm

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

বারবার ইনজুরিতে পরা পেস বোলারদের নিয়তিই বলা চলে। তবে ইনজুরি জিনিসটা মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে বুঝি বেশিই পছন্দ করে ফেলেছে! ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে ইনজুরি সমস্যায় ভুগতে হয়েছে। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চোটে আক্রান্ত হওয়া সাইফউদ্দিনকে মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে দীর্ঘদিন। তরুণ এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার আক্ষেপঝড়া কণ্ঠে বললেন, বাকিদের চেয়ে আমি হয়তো একটু বেশিই দুর্ভাগা!

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া সাইফউদ্দিন এখনো টেস্ট খেলেননি। রঙিন পোশাকের ক্রিকেটেও দলে থাকতে পারেননি নিয়মিত। আর তার বড় কারণ চোট। সাইফউদ্দিনের অভিষেকের পর রঙিন পোশাকে ১৩০ ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। তার মধ্যে বারবার ইনজুরিতে পরা সাইফ খেলেছেন ৫৮ ম্যাচ। নিজেকে দুর্ভাগা ভাবতেই পারেন তরুণ অলরাউন্ডার।

ইনজুরি কাটিয়ে গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলেছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলেও ডাক পেয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথমে টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ, ফলে টেস্ট দলে ইতোমধ্যেই পৌঁছে গেছে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে। আর ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের সদস্যরা দেশেই অনুশীলন করছেন।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১২ জুন) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অন্যদের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন সাইফউদ্দিনও। অনুশীলনের ফাঁকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলছিলেন, ‘হয়তো আর পাঁচজন পেস বোলারের চেয়ে আমি কিছুটা দুর্ভাগা। কিন্তু এটা জীবনেরই অংশ। এটা মেনে নিয়েই চলতে হবে। কত দিন সুস্থ থাকতে পারব জানি না। চেষ্টা করছি যত দিন খেলতে পারি…সামনে বিশ্বকাপ আছে। ২০২৩ বিশ্বকাপ আছে, তো পারফরম্যান্স (ধরে রাখার) পাশাপাশি সুস্থ থাকাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ আমার জন্য।’

পেস বোলারদের ক্ষেত্রে ইনজুরিতে পরা স্বাভাবিক বিষয়। সাইফ এটাও মানছেন ইনজুরি বিষয়টা নিজের হাতে নেই। বলেছেন, ‘প্রত্যেক মানুষের জীবনেই বিরতি থাকে। ঢাকায় যদি গাড়ি চালান, একই গতিতে চালাতে পারবেন না। ব্রেক দিতেই হবে। যারা অনেক ভাগ্যবান, তারা চোট ছাড়া অনেক দিন খেলে যেতে পারে। (তবে) বেশির ভাগ পেস বোলারেরই এমন (চোট) থাকে। জানি না আবার কয় দিন খেলতে পারব। পারফরম্যান্স ও চোটের ব্যাপার আছে। চেষ্টা করছি, কী হবে তা কারও হাতে নেই।’

বিজ্ঞাপন

সাইফউদ্দিন যখন সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচটা খেলেছেন তখন থেকে বর্তমান বাংলাদেশ দলে অনেক পরিবর্তন। বিশেষ করে কোচিং স্টাফে।  পেস বোলিং কোচ হিসেবে নতুন করে যুক্ত হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তি অ্যালান ডোনাল্ড। ডোনাল্ডের সঙ্গে ইতোমধ্যেই হাই-হ্যালো হয়েছে সাইফের। তবে কাজ করার সুযোগ হয়নি।

তরুণ পেস অলরাউন্ডার বলছেন, নতুন কোচ ডোনাল্ডের সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে আছেন তিনি, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টটা চট্টগ্রামে খেলা হয়েছিল, ওখানে অনুশীলনে গিয়েছিলাম আমি। ওখানেই কিছুটা হাই-হ্যালো আলাপ হয়েছিল। কথা হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে যদি থাকি…ওনার সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি।’

বিজ্ঞাপন

১৬ জুন থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। তারপর ২ জুলাই থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ১৪ জুলাই থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন