বিজ্ঞাপন

হাসপাতালে বিশেষ শয্যা ও আইসিউ প্রস্তুত রাখার পরামর্শ

June 16, 2022 | 9:31 am

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ আবার বাড়ছে। মাসের ব্যবধানেও বেড়েছে সংক্রমণ হার। এ অবস্থায় ক্রমবর্ধমান সংক্রমণের চাপ সামাল দিতে করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত হাসপাতালগুলোতে বিশেষ শয্যার পাশাপাশি ও আইসিইউ শয্যা প্রস্তুত রাখার পরামর্শ দিয়েছে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় গঠিত সরকারের জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।

বিজ্ঞাপন

কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লার সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল বুধবার (১৫ জুন) রাতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সম্প্রতি দিনগুলোতে দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য যে বিশেষ শয্যা, আইসিইউ ব্যবস্থা ও জনবল ছিল, তা বর্ধিত হারে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য যথাযথভাবে প্রস্তুত রাখা প্রয়োজন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সব ক্ষেত্রে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা, নো মাস্ক নো সার্ভিস নীতি প্রয়োগ করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, জনসমাগম বর্জন করা প্রয়োজন। ধর্মীয় প্রার্থনার স্থানগুলোতে (মসজিদ, মন্দির ও গির্জা ইত্যাদি) মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা দরকার।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য জনসাধারণকে পুনরায় উদ্বুদ্ধ করতে গণমাধ্যমে অনুরোধ জানাতে হবে বলেও জানানো হয়েছে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত মঙ্গলবার (১৩ জুন) বিকেলে রাজধানীর মহাখালীর আইসিডিডিআরবি অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যেভাবে অসতর্ক হয়ে চলাচল করছি, হাসপাতালে রোগী বাড়তে সময় লাগবে না।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ আমরা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছিলাম, কিন্তু দেশে এখন আবার করোনা বাড়ছে। গত এক মাস দেশে সংক্রমণের হার ছিল দশমিক ৬ শতাংশ, এখন সেটা ২ শতাংশে উঠে গেছে। প্রতিদিন যেখানে দৈনিক ৩০ থেকে ৩৫ জন রোগীর করোনা শনাক্ত হতো, এখন তা ১৫০ ছাড়িয়ে গেছে। আমরা আশঙ্কা করছি, আমাদের যদি এ মুহূর্তে পরীক্ষা বাড়ে, তাহলে সংক্রমণের সংখ্যাও আরও বেড়ে যাবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, আমাদের জন্য একটা ভালো বিষয় হলো আমাদের কোনো হাসপাতালে এখন ২০ জনের বেশি রোগী নেই। কিন্তু আমরা যেভাবে অসতর্ক হয়ে চলাচল করছি, হাসপাতালে রোগী বাড়তেও সময় লাগবে না। তাই আমাদের স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে আরও সতর্ক হতে হবে। আপনারা সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ করবেন, এটি আমরা আশা করব।

সারাবাংলা/এসবি/এনএস

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন