বিজ্ঞাপন

জবাই করে খুনের ভয় দেখিয়ে শিশু ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন

June 20, 2022 | 7:27 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বটি দিয়ে জবাই করে খুনের ভয় দেখিয়ে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই রায়ে আদালত তাকে তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২০ জুন) চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭-এর বিচারক ফেরদৌস আরা এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডিত আব্দুস সালামের বাড়ি ভোলা জেলার বোরহান উদ্দিন উপজেলায়। ঘটনার সময় তিনি চট্টগ্রাম নগরীর উত্তর পতেঙ্গা এলাকায় থাকতেন।

বিজ্ঞাপন

২০১৮ সালের ২ জুন নগরীর পতেঙ্গা থানার উত্তর পতেঙ্গায় ভাড়া বাসায় নিজ কক্ষে প্রতিবেশী ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে।

মামলায় আনা অভিযোগের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি খন্দকার আরিফুল আলম সারাবাংলাকে বলেন, ‘শিশুটি বাসার বাইরে ছিল। তার মা নামাজ পড়ে দুপুর ২টার দিকে তাকে খুঁজছিল। তখন প্রতিবেশী আব্দুস সালামের ঘর থেকে কান্নার আওয়াজ আসে। তিনি সেখানে যাওয়ার পর দেখেন, আব্দুস সালাম দ্রুত ঘর থেকে বের হয়ে পালিয়ে যাচ্ছেন। শিশুটি তার মাকে ঘটনা খুলে বলে। পরদিন তার মা বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেন। আদালতের নির্দেশে পতেঙ্গা থানা এজাহার গ্রহণ করে। শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়।’

বিজ্ঞাপন

‘এরপর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় ওই শিশু আদালতে জবানবন্দি দিয়ে জানায়, তাকে ফুসলিয়ে নিজের ঘরে নেয় আব্দুস সালাম। এরপর বটি দিয়ে জবাই করার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে। পুলিশ আব্দুস সালামকে গ্রেফতারের পর সে-ও ধর্ষণের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দেয়,’— বলেন খন্দকার আরিফুল আলম।

পতেঙ্গা থানা পুলিশ আব্দুস সালামকে একমাত্র আসামি অভিযোগপত্র দাখিল করে। অভিযোগ গঠনের পর আদালতে মোট আট জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়। গ্রেফতারের পর থেকে আব্দুস সালাম এখনো কারাগারে আছেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি খন্দকার আরিফুল আলম জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন