বিজ্ঞাপন

এসও ফান্ডের অর্থ বন্যাদুর্গতদের জন্য ব্যয়ের দাবি

June 21, 2022 | 12:18 am

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নাগরিক ও গ্রাহকদের খাবার, চিকিৎসা, নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা ও টেলিযোগাযোগ সেবা প্রদানের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত নেটওয়ার্কের মানোন্নয়নে মোবাইল গ্রাহকদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা এসও ফান্ড (সোস্যাল অবলিগেশন ফান্ড) বা সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলের অর্থ বরাদ্দ করার অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২০ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, গ্রাহকদের কাছ থেকে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলের নামে অর্থ আদায় করে থাকে। কিন্তু এই অর্থ কেবল প্রান্তিক পর্যায়ে বা দুর্গম এলাকায় নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে ব্যয় করা হয়। এই অর্থ গ্রাহকের স্বার্থ রক্ষা, নিরাপত্তা ও দুর্যোগ মোকাবিলা করার কারণেই সংগ্রহ করা হয়। তাই আমাদের দাবি, চলমান ভয়াবহ বন্যার পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত জনগণ ও গ্রাহকদের স্বার্থ বিবেচনা করে এই তহবিল থেকে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ করা হোক।

মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, গণমাধ্যমের তথ্য-উপাত্ত অনুযায়ী, গত কয়েক দিনের আকস্মিক ভয়াবহ বন্যায় দেশের কয়েকটি অঞ্চল বিশেষ করে সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা, শেরপুর, কুড়িগ্রামসহ অন্যান্য জেলার কিছু কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যার ক্ষয়ক্ষতি এতটাই ভয়াবহ যে এসব এলাকায় বিদ্যুৎ ও যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম মোবাইল নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তবে সেনাবাহিনী, অপারেটর ও বিটিআরসির নিরলস পরিশ্রমে ফের নেটওয়ার্ক সচল হতে যাচ্ছে। অপারেটররাও সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী রেসকিউ টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য কয়েকটি টোল-ফ্রি নম্বর দিয়েছে। এ উদ্যোগেকে আমরা সাধুবাদ জানাই।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, তবে এতে যে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, এমনটি ভাবা ঠিক নয়। কারণ ত্রাণসামগ্রী বা অর্থনৈতিক সহযোগিতা পাওয়া কিংবা পরিবারের সঙ্গে বা আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য এখন কাদের মোবাইল ফোনে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স। তাদের ঘরে খাবার নেই। চিকিৎসাসেবার সুযোগ নেই। এই মুহূর্তে তাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন চিকিৎসা, নিরাপদ আশ্রয়স্থল, খাবার ও মোবাইল ফোনের ব্যালেন্স।

মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের এই নেতা বলেন, নেটওয়ার্ক নিরবিচ্ছিন্ন রাখতে বিটিএস টাওয়ার, ফাইবারের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তাই আমাদের দাবি, বিটিআরসিতে গ্রাহকদের সঞ্চিত সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলের অর্থ এখন ব্যয় করা হোক। বিভিন্ন মাধ্যমে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এর পরিমাণ এখন প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। এই অর্থ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার জনগণের মধ্যে খাদ্য, চিকিৎসা ও নিরবচ্ছিন্ন মোবাইল যোগাযোগ রাখার স্বার্থে ব্যয় করা হোক। আমরা ক্ষতিগ্রস্ত টেলিযোগাযোগ ইন্টারনেট সেবা মেরামত ও নেটওয়ার্কের মানোন্নয়নে সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলের অর্থ ব্যয় করার অনুরোধ করছি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইউজে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন