বিজ্ঞাপন

শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা করা জিতু ৫ দিনের রিমান্ডে

June 30, 2022 | 6:29 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আশুলিয়ার হাজী ইউনুছ আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলার আসামি একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী আশরাফুল আহসান জিতুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব হাসানের আদালত তার এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর আনোয়ারুল কবীর বাবুল সারাবাংলাকে জানান, এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) এমদাদুল হক আসামি জিতুকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত শুনানি নিয়ে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন-

শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা করা জিতু ৫ দিনের রিমান্ডে

বিজ্ঞাপন

স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার সময় গত ২৫ জুন দুপুরের দিকে হঠাৎ অভিযুক্ত শিক্ষার্থী মাঠের একপাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষক উৎপলকে স্টাম্প দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। পরে তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই সোমবার (২৭ জুন) ভোর ৫টার দিকে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারের বড় ভাই অসীম কুমার সরকার অভিযুক্ত শিক্ষার্থী আশরাফুল ইসলাম জিতুকে প্রধান করে হত্যা মামলা করেন। এজাহারে অজ্ঞাতনামা অনেককেই আসামি হিসেবে তিনি উল্লেখ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত মঙ্গলবার (২৮ জুন) রাতে কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী থানা এলাকা থেকে জিতুর বাবা উজ্জ্বল হোসেনকে আটক করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। তাকে শিক্ষক উৎপল কুমার হত্যা মামলার অজ্ঞাতনামা আসামি হিসেবে গ্রেফতার দেখানো হয়। এরপর গতকাল বুধবার (২৯ জুন) র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব) গ্রেফতার করে মামলার মূল আসামি জিতুকে।

বৃহস্পতিবার এক ব্রিফিংয়ে র‌্যাব জানিয়েছে, ওই স্কুলের এক ছাত্রীর সঙ্গে জিতুর অযাচিতভাবে ঘোরাফেরার বিষয়টি নজরে এলে শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার তাদের এ বিষয়ে সতর্ক করেন। এ ঘটনায় জিতু ক্ষুব্ধ হয়ে এবং ওই ছাত্রীর কাছে নিজের ‘হিরোইজম’ দেখাতে তার শিক্ষকের ওপর হামলার পরিকল্পনা করে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন