বিজ্ঞাপন

ইদযাত্রা দুর্ঘটনামুক্ত রাখতে ১০ সুপারিশ

July 1, 2022 | 4:53 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আসন্ন পবিত্র ইদুল আজহা’য় কোরবানির অবৈধভাবে যেসব পশুর হাট বসবে, সেগুলো একদিনে নাগরিক জীবনে ভোগান্তি বাড়াবে, অন্যদিকে তীব্র যানজট তৈরি করবে বলে মনে করছেন বেসরকারি সংস্থা সেভ দ্য রোড। একইসঙ্গে বরাবরই দেশে ইদযাত্রার সময় দুর্ঘটনা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। এসব দুর্ঘটনা রোধ করতে ১০টি সুপারিশ তুলে ধরেছে সংস্থাটি।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১ জুলাই) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ইদুল আজহা সামনে রেখে কোরবানির পশুর হাট, ফুটপাত দখল ও দুর্ঘটনামুক্ত সড়ক প্রসঙ্গে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সুপারিশগুলো তুলে ধরেছে সেভ দ্য রোড। এসময় পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে চালকদের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার কথা তুলে ধরা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সেভ দ্য রোডের মহাসচিব শান্তা ফারজানা বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মাত্র তিন দিনের ব্যবধানে নির্মম সড়ক দুর্ঘটনায় আমাদের তিন জন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। বাইকারদের বেপরোয়া গতির কারণে কর্তৃপক্ষ পদ্মা সেতুতে বাইক নিষিদ্ধ করেছে সাময়িক সময়ের জন্য। কিন্তু তারা পদক্ষেপ নিতে পারত, কঠোর শাস্তি ও জরিমানার ব্যবস্থা নিতে পারত। সেটি না করে (বাইক বন্ধের) এমন পদক্ষেপে বিক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে ৩৭ লাখ ৫২ হাজার নিবন্ধিত মোটরসাইকেলের মালিকরা, যারা ভ্যাট-ট্যাক্সসহ সরকারের রাজস্বকে সমৃদ্ধ করছে।

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে দুর্ঘটনামুক্ত ইদযাত্রা নিশ্চিত করতে ১০টি সুপারিশ করা হয়। সুপারিশগুলো হলো—

১. যেখানে-সেখানে গাড়ি পার্কিং বন্ধে পুলিশ-প্রশাসন-সংশ্লিষ্টদের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ, প্রয়োজনে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত নিয়ে জরিমানা করা, শাস্তি দেওয়া;

বিজ্ঞাপন

২. বাস বে ও ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার করার জন্য সচেতনতা ও বাধ্য করতে সরকারি উদ্যোগ নেওয়া;

৩. ফুটপাত দখলের কারণে মহাসড়কে দুই-তিন কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট তৈরি হয়। তাই আইনের কঠোর প্রয়োগ ও স্থানীয় নেতাদের হাত থেকে ফুটপাতকে মুক্ত রাখতে বিভাগ-জেলা-উপজেলা প্রশাসনের বিশেষ নোটিশ জারি করতে হবে;

বিজ্ঞাপন

৪. ২০৫ কিলোমিটারের ভাঙ্গা-বরিশাল-কুয়াকাটার অপ্রশস্ত সড়ককে ইদের আগে যথাসম্ভব যানজটমুক্ত রাখার পাশাপাশি ইদের পরপরই রাস্তা প্রশস্ত করার বিশেষ উদ্যেগ নিতে হবে;

৫. পদ্মা সেতু অতিক্রম করে ফরিদপুরের ভাঙ্গা মোড় পর্যন্ত ৪২ কিলোমিটার রাস্তায় দক্ষিণাঞ্চলমুখী ২১ জেলার সব যানবাহন যেন দুর্ঘটনাকবলিত না হয় বা এই সড়কে যেন যানজট তৈরি না হয়, সেটি নিশ্চিত করতে কোরবানির পশু বহনকারী ট্রাক-পিকআপগুলোর পাশাপাশি সব বাহনের গতি নিয়ন্ত্রণে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে;

বিজ্ঞাপন

৬. সড়ক-মহাসড়কে যেহেতু সর্বোচ্চ ২৪ ফুট প্রশস্ত সড়কে চলতে হয়, সেহেতু দুর্ঘটনা ও যানজট এখন নিত্যনৈমিত্তিক যন্ত্রণার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইদযাত্রার ভোগান্তি কমাতে ওভারটেকিং বন্ধ এবং সব ধরনের পরিবহনকে স্বাভাবিক গতিতে বাহন চালাতে বাধ্য করতে হবে;

৭. সড়ক-মহাসড়কের আশপাশে কোরবানির পশু বিক্রি, জবাইসহ সব প্রক্রিয়া নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে হবে;

৮. ২ হাজার ৫২১টি বেহাল সড়ককে সর্বোচ্চ গুরুত্বের সাথে সংস্কার করতে উদ্যেগ নিতে হবে;

৯. স্থানীয় ক্ষমতাসীন রাজনীতিকদের চাঁদাবাজির সূত্র ধরে গড়ে ওঠা সড়ক-মহাসড়কের অবৈধ পশুর হাট উচ্ছেদে প্রশাসনকে কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে; এবং

১০. ইদকে কেন্দ্র করে পরিবহন থামিয়ে রাজনৈতিক-প্রশাসনিক ব্যক্তিদের চাঁদাবাজি বন্ধ না হলে এবার ইদযাত্রায় ভোগান্তি থেকে মুক্তি পাবে না সাধারণ মানুষ।

সংবাদ সম্মেলনে সেভ দ্য রোডের চেয়ারম্যান জেড এম কামরুল আনামের সভাপতিত্বে ও প্রতিষ্ঠাতা মোমিন মেহেদীর সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী, সেভ দ্য রোড অস্ট্রিয়ার আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান বিকাশ রায়, শওকত হোসেন, আইয়ুব রানা, জিয়াউর রহমান জিয়া, সোনিয়া দেওয়ান প্রীতি, ওয়াজেদ রানা, আল আমিন মুন্না, আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল, জাহিদ রিয়াদ, কায়েস সজিবসহ অন্যরা।

সারাবাংলা/এসজে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন