বিজ্ঞাপন

ড. রতন সিদ্দিকীর ওপর হামলার অভিযোগ

July 1, 2022 | 8:17 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জুমার নামাজের সময় বাসায় গাড়ি প্রবেশ করা নিয়ে নাট্যকার অধ্যাপক ড. রতন সিদ্দিকীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। রতন সিদ্দিকীর অভিযোগ, জুমার নামাজের সময় ‌একদল মুসল্লি তার এবং তার গাড়িচালকের ওপর ‘হামলা’করেছে। এ নিয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তিনি। তবে পুলিশ বলছে, জুমার নামাজের সময় বাসার গেটের সামনে মোটরসাইকেল রাখা ছিল, এতে তার গাড়ি প্রবেশ করতে পারছিল না। এ নিয়ে মুসল্লি এবং রতন সিদ্দিকীর মধ্যে তর্কাতর্কি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১ জুলাই) জুমার নামাজের সময় রাজধানীর উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরের ৬/এ নং সড়কের বাসায় এই ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বিকেলে অধ্যাপক রতন সিদ্দিকীর মেয়ে পূর্ণাভা হক সিদ্দিকী এ সব কথা বলেন।

ড. রতন সিদ্দিকী জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রগতি লেখক সংঘের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। নাটকে অবদান রাখায় ২০২০ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন এই অধ্যাপক। তার স্ত্রী ফাহমিদা হক কলিও একজন লেখক ও নাট্যব্যক্তিত্ব।

বিজ্ঞাপন

পূর্ণাভা হক সিদ্দিকী বলেন, বাবা ও মা বাইরে ছিলেন। দুপুরের দিকে বাসায় ফেরেন তারা। কিন্তু গেটের সামনে ভ্যান, মোটরসাইকেল রাখা ছিল। গাড়ি কোনোভাবেই প্রবেশ করতে পারছিল না। বাবা ওসব সরাতে বললে কিছু লোক চিৎকার করে ওঠে। এ সময় মা গাড়ি থেকে নেমে বাসায় প্রবেশ করলেও বাবা ও গাড়িচালককে লাঞ্ছিত করেছে কিছু লোক। শুক্রবার এলেই মসজিদের মুসল্লিরা বাসার সামনে মোটরসাইকেল রেখে নামাজ পড়েন। প্রায় সময় এসব তাদের সরাতে বলেন বাবা। আজ তারা হামলা করল।

এলাকার মুসল্লি, ভ্যানওয়ালা ও কিছু বস্তির ছেলে এই হামলা চালিয়েছে অভিযোগ করে পূর্ণাভা হক সিদ্দিকী বলেন, ‘হামলার দেড়ঘণ্টা পর পুলিশ আসে। আর বাসার সামনের স্কুলের প্রিন্সিপাল স্যার ও কয়েকজন শিক্ষক আসেন। আমার বাবা একজন শিক্ষক, একজন জাতীয় ব্যক্তিত্ব। আজকে তাকে অসম্মানিত হতে হলো। হামলার শিকার হতে হলো।’

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডিএমপির উত্তরা বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) মোর্শেদ আলম সারাবাংলাকে বলেন, ‘ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়েছিল সেখানে। বেশ কিছুদিন ধরে স্থানীয় ভ্যান ব্যবসায়ীদের সঙ্গে রতন সিদ্দিকীর সমস্যা চলছিল। আজও জুমার নামাজের সময় তার বাসার গেটের কাছে ভ্যান ও কিছু মুসল্লি মোটরসাইকেল রেখে নামাজ বসেছিল। যতটুকু শুনেছি মুসল্লিদের সাথে তর্কাতর্কি হয়েছে।’

হামলা হয়েছে এমনটা অভিযোগ করা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তার ওপর হামলা হয়েছে এরকম অভিযোগ আসলে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব। সেখানে নিশ্চয়ই সিসি ক্যামেরা রয়েছে। আরও মানুষজন উপস্থিত ছিলেন। সবকিছু তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইউজে/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন