বিজ্ঞাপন

ডেসটিনির রফিকুলের ২০০ কোটি টাকা জরিমানা স্থগিত

July 4, 2022 | 3:25 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ ও অর্থ পাচারের দায়ে ১২ বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তাকে ২০০ কোটি টাকা জরিমানার রায় স্থগিত করেছেন আদালত। পাশাপাশি এ মামলার বিচারিক আদালতের নথি তলব করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৪ জুলাই) সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কে এম মাসুদ রুমী বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে শুনানি করে বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান ও বিচারপতি রিয়াজ উদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ৯ জুন ডেসটিনির চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদের চার বছরের দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট।

অন্যদিকে গত ১৩ জুন ডেসটিনির ৪৫ জনকে বিচারিক আদালতের দেওয়া সাজা বাড়াতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদন শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন হাইকোর্ট।

বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ১২ মে গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের দায়ে ডেসটিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনকে ১২ বছর কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। পাশাপাশি তাকে ২০০ কোটি টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৩ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে রায়ে। আর ডেসটিনি গ্রুপের প্রেসিডেন্ট হারুন-অর-রশিদকে চার বছরের কারাদণ্ড এবং সাড়ে ৩ কোটি টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে অবদানের’ কথা বিবেচনায় নিয়ে আদালত তাকে এই অপরাধের সর্বনিম্ন সাজায় দণ্ডিত করে।

এ ছাড়া হারুনের অবরুদ্ধ সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাবে অবমুক্ত (রিলিজ) করার নির্দেশ দেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

ঢাকার চতুর্থ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ নাজমুল আলম এই রায়ে ৪৬ আসামির সবাইকে দোষী সাব্যস্ত করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়ার পাশাপাশি ২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা জরিমানা করেন।

এরপর নিম্ন আদালতের দেওয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিল করেন হারুন-অর-রশিদ ও রফিকুল আমিন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/কেআইএফ/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন