বিজ্ঞাপন

বাসায় স্ত্রীর লাশ: চসিক কাউন্সিলরের ছেলে রিমান্ডে

July 5, 2022 | 6:41 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: স্ত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আওয়ামী লীগ দলীয় কাউন্সিলর নুরুল আমিনের ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি পেয়েছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

মামলার তদন্ত কর্মকর্তার মঙ্গলবার (৫ জুলাই) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সরোয়ার জাহান আসামি নওশাদ আমিনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন।

শনিবার (২ জুলাই) সকালে নগরীর পাহাড়তলী থানার সরাইপাড়া ওয়ার্ডের পদ্মপুকুর পশ্চিমপাড়া এলাকার বাসা থেকে রেহনুমা ফেরদৌস মিতুলের (২৪) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সরাইপাড়া ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নুরুল আমিনের ছেলে মিতুলের স্বামী নওশাদ আমিন বেসরকারি একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা। মিতুলের বাবা তারেক ইমতিয়াজ চসিকের ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর প্রয়াত তারেক সোলায়মান সেলিমের বড় ভাই।

বিজ্ঞাপন

বাসা থেকে স্ত্রীর লাশ উদ্ধারের পর শনিবার রাতে তার স্বামী নওশাদ আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয় নগরীর পাহাড়তলী থানা পুলিশ। রাতে এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ তাকে গ্রেফতার দেখায়।

নওশাদ আমিনের পরিবারের দাবি, মিতুল আত্মহত্যা করেছে। তবে তারেক ইমতিয়াজের দাবি, তাকে মানসিক নির্যাতনের মধ্য দিয়ে আত্মহত্যায় বাধ্য করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান সারাবাংলাকে বলেন, ‘আসামি নওশাদ আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমরা তিন দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেছিলাম। আদালত দুই দিন মঞ্জুর করেছেন। আসামিকে তদন্ত কর্মকর্তার হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।’

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন