বিজ্ঞাপন

ঝুঁকি নিয়ে ট্রাক-পিকআপে বাড়ি ফিরছে মানুষ

July 7, 2022 | 8:00 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

সিরাজগঞ্জ: প্রিয়জনের সঙ্গে ইদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বাধা-ভোগান্তি পেরিয়ে বাড়ি ছুটছে মানুষ। বাসে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া, সিট না পাওয়ায় অনেকেই প্রচণ্ড রোদের মধ্যে ট্রাক-পিকআপ ট্রাকে চড়ে বাড়ি ফিরছেন তারা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) সরেজমিনে সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে এই দৃশ্য দেখা যায়।

কথা হয় ট্রাকে যাওয়া কয়েকজন যাত্রীর সঙ্গে। তারা বলেন, ‘বাসে ভাড়া অনেক বেশি। তাই ট্রাকযোগে বাড়ি যাচ্ছি। আমরা গরিব, তাই প্রতিবারই এমন দুর্ভোগ হয়। দুর্ভোগ জেনেও পরিবারের সঙ্গে ইদ করার জন্য আমরা বাড়িতে যাই।’

বিজ্ঞাপন

ঢাকা থেকে বগুড়াগামী রুবেল, রবিউল, নাজমা সুমাইয়া নামের কয়েকজন যাত্রী জানান, তারা গাজীপুরের একটি গার্মেন্ট ফ্যাকটরিতে চাকরি করেন। বাড়ি বগুড়ার শাহজাহানপুরে। স্বজনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে সকাল ৬টায় গাজীপুর থেকে মিনি ট্রাকে করে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।

তারা আরও বলেন, ‘বাস ও মাইক্রোতে ভাড়া বেশি। তাই এই প্রচণ্ড রোদে ইদের আনন্দ উপভোগ করতে বাড়ি যাচ্ছি। গাড়ি যখন ব্রেক ধরে তখন অন্যজনের ওপর গিয়ে পড়ি। খুব কষ্ট করে ঢাকা থেকে এভাবেই ফিরছি। মহাসড়কের বিভিন্ন জায়গায় যানজট কাটিয়ে দুপুরের দিকে হাটিকুমরুল গোলচত্বরে এলাকায় পৌঁছালাম। এর মধ্যে কেটে গেছে প্রায় ৮ ঘণ্টা। এখান থেকে বাড়ি পৌঁছাতে আরও প্রায় দুই ঘণ্টার মতো সময় লাগবে।’

বিজ্ঞাপন

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান জানান, বুধবার (৬ জুলাই) রাত থেকেই বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে যানবাহনের চাপ রয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে যানবাহনের চাপ অনেক বেড়েছে। মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বাড়বে। তবে মহাসড়কের কোথাও যানজট বা ধীরগতি সৃষ্টি হয়নি। মহাসড়কের যানজট নিরসনে হাইওয়ে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

সারাবাংলা/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন