বিজ্ঞাপন

ডিএসএলআর বানানো বন্ধ করছে নিকন

July 16, 2022 | 7:21 pm

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

বিশ্বের বৃহত্তম ক্যামেরা প্রস্তুতকারক কোম্পানি নিকন নতুন মডেলের ডিজিটাল সিঙ্গেল লেন্স রিফ্লেক্স (ডিএসএলআর) ক্যামেরা উৎপাদন বন্ধ করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে টোকিওভিত্তিক নিক্কেই এশিয়া। তবে, বিদ্যমান এসএলআর মডেলগুলোর উৎপাদন এবং বাজারজাত চালিয়ে যাবে নিকন।

বিজ্ঞাপন

মিররলেস ক্যামেরার চাহিদা বাড়ার কারণে এসএলআর ক্যামেরার বাজার ছেড়ে মিররলেসের দিকে ঝুঁকছে নিকনসহ বিভিন্ন ক্যামেরা প্রস্তুতকারক কোম্পানি। এখন থেকে সম্পূর্ণ নতুন মডেলের মিররলেস ক্যামেরা উৎপাদনের দিকে ঝুঁকবে নিকন।

নিক্কেই-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, নিকনের এসএলআর ক্যামেরাগুলো ৬০ বছরেরও বেশি সময় ধরে পেশাদার ফটোগ্রাফাররা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করেছেন। তারপরও প্রযুক্তির উৎকর্ষতার কারণে এসএলআর ক্যামেরার বিদায় ঘণ্টার শব্দ বেশ কয়েক বছর ধরেই শোনা যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এর অন্যতম কারণ, ভোক্তাদের মধ্যে হাই-কোয়ালিটির ছবি এবং তুলনামূলক হালকা ও আকারে ছোট বিকল্প হিসেবে আরও ভালো সুবিধা নিয়ে এসেছে মিররলেস ক্যামেরা।

এ বিষয়ে নিকন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা এমন কোনো ঘোষণা দেয়নি। তারা তাদের ডিজিটাল এসএলআর উৎপাদন, বিক্রয় এবং পরিষেবা চালিয়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

নিকন ঘোষণা দিয়েছিল, তারা দুটি সাশ্রয়ী মূল্যের ডিএসএলআর, ডি৩৫০০ এবং ডি৫৬০০ উৎপাদন বন্ধ করে দিচ্ছে। তারা আরও জানায়, তারা পেশাদার এবং শখের ফটোগ্রাফারদের লক্ষ্য করে মাঝারি থেকে হাই রেঞ্জের ক্যামেরা উৎপাদন এবং লেন্সগুলোর বিষয়ে আরও বেশি মনোযোগ দিয়ে চায়।

এ ছাড়া তরুণ ব্যবহারকারী বিশেষ করে যাদের প্রাথমিক লক্ষ্য থাকে ভিডিও কনটেন্ট তৈরি, তাদের জন্য আরও উপযোগী ক্যামেরা তৈরির দিকে মনোযোগী হচ্ছে নিকন।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে, ক্যামেরার বাজারে শীর্ষ কোম্পানি ক্যাননও এসএলআর প্রযুক্তি থেকে ধীরে ধীরে পিছিয়ে আসতে শুরু করেছে। গত বছর তারা জানায়, ইওস-১ডি এক্স মার্ক-৩ হবে তাদের শেষ ফ্ল্যাগশিপ ডিএসএলআর ক্যামেরা।

সে সময় ক্যাননের সিইও জানান, বাজারের চাহিদা খুব দ্রুত মিররলেস ক্যামেরার দিকে ঝুঁকছে। তাই ক্রমবর্ধমান মানুষের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে তারাও সেদিকে ঝুঁকছেন। তিনি এও জানান, প্রতিষ্ঠানটি ভবিষ্যতে কিছু ইন্ট্রো এবং মিড রেঞ্জের ডিএসএলআর ক্যামেরা তৈরি অব্যাহত রাখবে।

বিজ্ঞাপন

২০২১ সালে নিকন প্রায় চার লাখ এসএলআর ক্যামেরা বিক্রি করেছে। মিররলেস প্রযুক্তির উত্থানের পাশাপাশি, এসএলআর ক্যামেরাগুলো বেশ অনেকদিন ধরেই স্মার্টফোনের ক্যামেরার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আসছে। যা কয়েক দশক ধরে ক্যামেরার বাজারকে সংকুচিত করছে।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন