বিজ্ঞাপন

চবিতে ছাত্রী নিপীড়ন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার দাবি সিপিবির

July 21, 2022 | 6:53 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় জড়িতদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। একইসঙ্গে নিপীড়নের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টায় অভিযুক্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেলকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদেরও দাবি জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো চট্টগ্রাম জেলা সিপিবির সভাপতি অশোক সাহা ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীরের এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব দাবি জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে সিপিবি নেতারা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনায় আমরা স্তম্ভিত, শঙ্কিত। ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে তা যথাযথ হয়নি। রাত ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের হলে প্রবেশের বাধ্যবাধকতা দেয়া প্রশাসনের দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণের নমুনা বলে আমরা মনে করি। ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনার বিচারসহ চার দফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে পূর্ণ সংহতি জানিয়ে শিক্ষার্থীদের বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে দাবি মেনে নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন

‘আমরা পত্রিকান্তরে জেনেছি, ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনা ধামাচাপা দিতে সরকারী দলের ছাত্র সংগঠনের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি জোর চেষ্টা চালিয়েছেন। তাহলে কী আমরা ধরে নেব যে, ছাত্রী নিপীড়নের সঙ্গে সরকারী দলের ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা জড়িত ? আমরা তাকে গ্রেফতার করে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি করছি।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, নিপীড়নের ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রী বাদী হয়ে মামলা করেছেন। কিন্তু গত চারদিনেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করতে পারেনি। প্রশাসন সময়ক্ষেপণের মধ্য দিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের রক্ষার চেষ্টা করছে বলে আমাদের আশঙ্কা হচ্ছে। আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে ছাত্রী নিপীড়নে জড়িত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার দাবি করছি।

বিজ্ঞাপন

একইসঙ্গে প্রগতিশীল ছাত্রসমাজকে নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে জোরদার আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান সিপিবি নেতারা।

এর আগে, গত রোববার (১৭ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রীতিলতা হল এলাকায় এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের পর আপত্তিকর ভিডিও ধারণের অভিযোগ ওঠে। ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী পরদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের কার্যালয়ে এই বিষয়ে অভিযোগ দিতে গেলে চবি ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বাধা দেন বলেও অভিযোগ এসেছে। পরদিন ওই ছাত্রী প্রক্টরের কাছে অভিযোগ জমা দেন এবং থানায় মামলা করেন।

বিজ্ঞাপন

ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনার পর বুধবার (২০ জুলাই) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রাত ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের হলে প্রবেশের বাধ্যবাধকতা জারি করে। এর প্রতিবাদে বুধবার মধ্যরাতে ক্যাম্পাসে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক’শ ছাত্রী। তারা চার দফা দাবি তুলে ধরেন। চার দফা দাবির মধ্যে আছে- ক্যাম্পাসে ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা বিধান, হল থেকে বের হওয়া বা প্রবেশের এবং মেডিকেল যাওয়ার সময়সীমা তুলে নির্দেশনা দিতে হবে, যৌন নিপীড়ন সেল ভেঙে নতুন কার্যকরী যৌন নিপীড়ন সেল গঠন করতে হবে, সেলে বিচারের ব্যবস্থা করার জন্য সর্বোচ্চ সময়সীমা বাঁধা থাকবে ১ মাস এবং সেটা না হলে সেল স্বয়ং শাস্তির বিধান গঠন থাকবে, যৌন নিপীড়ন সেলে চলমান মামলাগুলোর আগামী চার কার্যদিবসের মধ্যে বিচার করতে হবে এবং চার কার্যদিবসের মধ্যে বিচার না হলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করবেন।

নিপীড়নের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভে নেমেছে প্রগতিশীল ছাত্র জোটসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এর সঙ্গে সংহতি জানিয়েছেন প্রগতিশীল শিক্ষকরাও।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন