বিজ্ঞাপন

আদালতপাড়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর আহত, স্বামী রিমান্ডে

August 4, 2022 | 11:22 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে মামলা করায় স্ত্রী রাহিমা খাতুনকে নুরুজ্জামান প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর আহত করায় মামলায় একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতয়ালী থানার সাব-ইন্সপেক্টর অনিল চন্দ্র রায় দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলামের আদালত তাদের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, স্বামী বিরুদ্ধে যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে মামলা করেছিলেন স্ত্রী রাহিমা খাতুন। ওই মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল গত বুধবার। শুনানিতে উপস্থিত হতে বাদী ও আসামি সকালে আদালতে আসেন। কিন্তু শুনানির আগেই স্ত্রীকে আদালতপাড়ায় প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন স্বামী নুরুজ্জামান। এ ঘটনায় নুরুজ্জামান ও তার সহযোগি কামরুল ইসলামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে সাধারণ জনতা। আর রাহিমা খাতুন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে রাহিমা খাতুনকে আহত করার ঘটনায় তার বোন মোসা. সারমিন আক্তার বৃহস্পতিবার নুরুজ্জামান ও কামরুলকে আসামি করে কোতয়ালী থানায় মামলা করেন।

বিজ্ঞাপন

আসামিদের পক্ষে অ্যাডভোকেট আকতার হোসেন সোহেল রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত দুই আসামির একদিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, নুরুজ্জামান ভিকটিম রাহিমা খাতুনকে বিয়ের আশ্বাস দেখিয়ে ২০১৮ সালের মার্চে কক্সবাজার নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরবর্তীকে নুরুজ্জামান রাহিমাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়। আপোষ-মীমাংসার পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের ৪ এপ্রিল তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে নুরুজ্জামান যৌতুকের জন্য রাহিমাকে যৌতুকের জন্য শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। গত বছর ১০ মার্চ রাহিমাকে মেরে রক্তাক্ত জখম করেন নুরুজ্জামান। এ ঘটনায় রাহিমা দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলা করেন। যা আদালতে বিচারাধীন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন