বিজ্ঞাপন

তিন বছর পর ফিরেই বিজয়ের ফিফটি

August 5, 2022 | 4:23 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

শেষবার ২০১৯ সালের ৩১ জুলাই শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে খেলতে নেমেছিলেন এনামুল হক বিজয়। এরপর দীর্ঘ তিন বছরে ডাক পাননি জাতীয় দলের। তবে অবশেষে ফিরেছেন তিনি আর ফিরেই নিজের প্রথম ওয়ানডেতেই তুলে নিয়েছেন ফিফটি। আট বছর পর ওডিআইতে অর্ধশতকের দেখা পেলেন তিনি। ক্যারিয়ারে এটি বিজয়ের চতুর্থ অর্ধশতক।

বিজ্ঞাপন

ঘরোয়া ক্রিকেটে বিশেষকরে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্ত পারফর্ম করে জাতীয় দলে ফিরেছিলেন এনামুল হক বিজয়। তবে পছন্দের সংস্করণ ওয়ানডে খেলার সুযোগ মিলেনি তার। অবশেষে জিম্বাবুয়েতে পেয়েছেন সে সুযোগ প্রথম ম্যাচে তাকে দলে রেখেছে টাইগাররা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ডাক পেলেও ওয়ানডেতে ডাক পাননি তিনি। অবশেষে ওয়ানডেতে ডাক পেলেন জিম্বাবুয়ে সফরে। আর দলে ফিরেই জানান দিলেন কেন তাকে একাদশে ফেরানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইনিংসের ২৬তম ওভারে তামিম ইকবাল ফিরলে উইকেটে আসেন এনামুল হক বিজয়। এরপর লিটন দাসের সঙ্গে দুর্দান্ত এক জুটি গড়েন তিনি। ৪৫ বল থেকে ৫২ রানের জুটি গড়ার পর পায়ে চোট পেয়ে উঠে যান লিটন। সে সময় ২২ বলে ১৭ রানে ব্যাট করছিলেন বিজয়। তবে লিটন ফেরার পর দলের হাল ধরেন বিজয়। অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিমকে সঙ্গে নিয়ে বড় জুটি গড়েন তিনি।

মুশফিকুর রহিম উইকেটে আসার পর দলের হাল ধরেন বিজয়। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে চাপ জেঁকে বসতে দেননি দলের উপর। ইনিংসের ৪১তম ওভারের ৫ম বলে শুম্বাকে ডাউন দ্যা ট্র্যাকে এসে লং অনের উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে ৪৭ বলে পূর্ণ করেন অর্ধশতক।

বিজ্ঞাপন

শেষবার ২০১৪ সালে ২৬ নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই মিরপুরে শেষবার অর্ধশতকের দেখা পেয়েছিলেন তিনি। এরপর ৮ বছর পর আবারও সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই পেলেন অর্ধশতকে দেখা।

এই রিপোর্ট লেখা অবধি বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৪ ওভারে ১ উইকেটে ২৫১ রান। বিজয় ৫৯ বলে ৮১ আর মুশফিক ২৮ বলে ২৫ রানে অপরাজিত আছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন