বিজ্ঞাপন

চবিতে কর্মচারী নিয়োগে লেনদেনের অডিও ফাঁস, চাকরিপ্রার্থীকে হুমকি

August 6, 2022 | 4:22 pm

চবি করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) রেজিস্ট্রার অফিসের নিম্নমান সহকারী মানিকচন্দ্র দাশের বিরুদ্ধে কর্মচারী নিয়োগে তিন চাকরি প্রার্থীর কাছ থেকে ৮ লাখ ২০ হাজার টাকা লেনদেনের অডিও রেকর্ড ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। টাকা ফেরত চাওয়ায় চাকরি প্রার্থীকে হুমকি দিতেও শোনা যায় অডিও রেকর্ডে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (৬ জুলাই) ফাঁস হওয়া দুটি অডিও রেকর্ড সারাবাংলা এই প্রতিবেদকরর হাতে এসেছে। ফাঁস হওয়া অডিও রেকর্ডে রেজিস্ট্রার অফিসের নিম্নমান সহকারী মানিকচন্দ্র দাশকে বলতে শোনা যায়, ‘তুমি আমারে চিন? একদম খাইয়া ফেলব, একদম পেটের মধ্যে মোচড় দিয়া খাইয়া ফেলব তোরে। পেটের মধ্যে মোচড় দিয়া খাইয়া ফেলব কিন্তু একদম। পার্সোনাল বিহেবিহার ঠিক করতে না পারলে খাইয়া ফেলব একদম। এই বেটা কিসের টাকারে তোর, তুই জুলাইয়ের আগে এক টাকাও পাবি না। শুন তুই পরীক্ষা দিছোস তোর এপ্লিকেন্ট পরীক্ষা দেখ, তখন যদি না হয় তুই ফুল টাকা পেয়ে যাবি একসঙ্গে।’

নিয়োগ প্রার্থীকে বলতে শোনা যায়, ‘যত টাকা নিছেন, সব টাকা এই মাসের মধ্যেই দিবেন। না, এই মাসের মধ্যেই দিবেন।’

বিজ্ঞাপন

মাকসুদুল সালেহীন নামে এক চাকরি প্রার্থী সারাবাংলাকে বলেন, ‘মানিকচন্দ্র নিজেকে সেকশন অফিসার পরিচয় দিয়েছে। পরে জানতে পারি, তিনি সেকশন অফিসার নয়। চাকরি দেওয়ার কথা বলে প্রথমে ৩০ হাজার, পরে ৭০ হাজার- এভাবে আমাদের তিনজনের কাছ থেকে ৮ লাখ ২০ হাজার টাকা নিয়েছে। আমাদের বলে যে, তিনমাসের মধ্যে চাকরি হয়ে যাবে। কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। চাকরিও নাই, টাকাও দিচ্ছে না ‘

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের নিম্নমান সহকারী মানিকচন্দ্র দাশকে একাধিকবার ফোন করা হলে, তার ফোনে সংযোগ পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

এই বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এস এম মনিরুল হাসান সারাবাংলাকে বলেন, ‘এটা একটা গর্হিত কাজ। আমরা তার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেব।’

সারাবাংলা/সিসি/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন