বিজ্ঞাপন

সৌদি আরবে নির্যাতিত নারী, ভিডিওকলে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার আকুতি

August 9, 2022 | 2:36 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

হবিগঞ্জ: সৌদি আরবে হবিগঞ্জের এক নারী সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন বলে ভিডিও কলে পরিবারকে জানিয়েছেন। তাকে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য আহাজারি করছেন। প্রশাসন জানিয়েছে, লিখিত অভিযোগ পেলে তাকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জেলার চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের তৈইগাঁও গ্রামের আব্দুল মজিদের মেয়ে শিল্পী আক্তার (২৫) ২০১৯ সালে সৌদি আরবে যান। সেখানে যাওয়ার পর ২০২১ সালে দেশে ফিরে আসার কথা থাকলেও তিনি আসতে পারেননি।

সম্প্রতি শিল্পী ভিডিও কলের মাধ্যমে তাকে নির্যাতনের কথা জানিয়েছে দেশে অবস্থানরত মা-বাবার কাছে আকুতি জানায়। এ ঘটনায় তার মা-বাবা অসহায় হয়ে পড়েছেন। মেয়েকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য বিভিন্ন এজেন্সির কাছে ধর্না দিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

বিজ্ঞাপন

শিল্পীর মা নূর চান বিবি বলেন, ‘৩ বছর আগে সৌদি আরবে যান তার মেয়ে। সেখানে যাওয়ার পর একটি বাসায় গৃহকর্মীর চাকরি পান। শিল্পী কাজে যোগ দেওয়ার পরই তার উপর শুরু হয় নির্যাতন। আমি আমার মেয়েকে ফিরে চাই। কিন্তু তারা আমার মেয়েকে দিচ্ছে না। ট্রাভেলসের লোকেরাও আমার মেয়েকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করছে না। তাই বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমাদের অনুরোধ, আমার মেয়েকে দেশে ফিরিয়ে এনে দিন।’

শিল্পীকে সৌদি আরবে পাঠানো ঢাকার পুরানা পল্টন এলাকার ‘ফোর সাইট ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডে’র কর্মকর্তা খালেদ হোসাইন বলেন, ‘আমরা শিল্পীকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয়ে এক মাস আগে অভিযোগ দিয়ে রেখেছি। আশা করি দ্রুত তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব।’ তবে শিল্পী আক্তার সৌদি আরবের কোথায় কাজ করেন তারাও নিশ্চিত নন।

বিজ্ঞাপন

চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিদ্ধার্থ ভৌমিক বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। তবে এখনও পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পাইনি। তারা আমাকে লিখিত অভিযোগ দিলে দূতাবাসের মাধ্যমে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করব।’

সারাবাংলা/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন