বিজ্ঞাপন

ব্রেন্টফোর্ডের কাছে চার গোল হজম করল ইউনাইটেড

August 14, 2022 | 12:50 am

স্পোর্টস ডেস্ক

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ২০২২/২৩ মৌসুমের শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের। মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে ব্রাইটনের বিপক্ষে ২-১ গোলের হার। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে ব্রেন্টফোর্ডের মাঠে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে রেড ডেভিলরা। ম্যাচের প্রথমার্ধেই চার গোলে এগিয়ে যায় ব্রেন্টফোর্ড। দ্বিতীয়ার্ধে স্কোরবোর্ডে আসেনি কোনো পরিবর্তন।

বিজ্ঞাপন

১৯৩৭ সালে শেষবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে জয় পেয়েছিল ব্রেন্টফোর্ড। ১৯৩৬/৩৭ মৌসুমে দুই দলের দুইবারের দেখাতেই জিতেছিল ব্রেন্টফোর্ড। এরপর মাঝে ছয় ম্যাচের পাঁচটি তারা হেরেছিল, একটি ড্র হয়েছিল। অবশেষে ৮৫ বছরের অপেক্ষার পালা শেষ হলো ব্রেন্টফোর্ড সমর্থকদের। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে কেবল হারায়ইনি সঙ্গে বিধ্বস্তই করেছে।

শুরুটা ইউনাইটেড গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়ার অবিশ্বাস্য এক ভুলে। আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার লিসান্দ্রো মার্টিনেজকে কিনেই যে ইউনাইটেডের রক্ষণ শক্তিশালী হয়ে যায়নি সেটার চাক্ষুস প্রমাণ মিলল ম্যাচের শুরুতেই। ম্যাচের ১০ম মিনিটে রোনালদো বলের নিয়ন্ত্রণ হারালে পেয়ে যান ব্রেন্টফোর্ডের মাথিয়াস ইয়েনসেন। তার পাস ধরে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জস ডিসিলভার শটে খুব বেশি জোর ছিল না। বাঁ দিকে শুয়ে পড়ে বল ধরতে যান ডি গিয়া কিন্তু বল তার হাত ফসকে জড়ায় জালে। ব্রেন্টফোর্ড লিড পেয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

আর এরপরেই জ্বলে ওঠে স্বাগতিকরা। আবারও ভুল করে বসলেন ইউনাইটেড গোলরক্ষক ডি গিয়া। ১৮তম মিনিট শিশুতোষ ভুল। ডিফেন্ডার লিসান্দ্রো মার্টিনেজ পাস দেন গোলরক্ষককে, তিনি কী বুঝে পাস দিলেন সোজাসুজি থাকা ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনকে কিন্তু ডি গিয়ার পাস খেয়ালই করেননি তিনি। তবে তিনি খেয়াল না করলেও ব্রেন্টফোর্ডে ইয়েনসেন ঠিকই খেয়াল করেন। আর সঙ্গে সঙ্গে বল কেড়ে নিয়ে নিচু শটে বল জালে জড়িয়ে দলকে এগিয়ে নিলেন ২-০ গোলে।

ব্রেন্টফোর্ডের কাছে চার গোল হজম করল ইউনাইটেড

বিজ্ঞাপন

এবার ম্যাচের ৩০ মিনিটের মাথায় এসে ভুল রেড ডেভিলদের রক্ষণেরই। কর্নারে দূরের পোস্টে লাফিয়ে হেড করেন ব্রেন্টফোর্ডের ইভান টনি। আর কাছের পোস্ট থেকে হেডে জালে পাঠান ইংলিশ ডিফেন্ডার বেন মি। ম্যাচের সময় আধা ঘণ্টা না পেরোতেই ইউনাইটেডের জালে তিনবার বল পাঠায় ব্রেন্টফোর্ড। তবে এখানেই থামেনি তারা। ইউনাইটেডকে সময় দেয় মাত্র পাঁচ মিনিট এরপরেই আবারও জালে বল পাঠায় তারা।

পাল্টা-আক্রমণে গোল করে স্বাগতিকরা। নিজেদের বক্স থেকে সতীর্থের লম্বা করে পাঠানো বল ধরে টনি বাড়ান ইউনাইটেডের ডি-বক্সের সামনে। সঙ্গে লেগে থাকা লুক শর বাধা এড়িয়ে বাঁ পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রায়ান এমবিউমো।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের খেলায় কিছুটা পরিবর্তন আনে ইউনাইটেড। কিছুটা আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে টেন হ্যাগের দল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সুযোগ পেয়েছিলেন রোনালদো। উড়ে আসা ক্রসে লাফিয়ে উঠে মাথা ছোঁয়ালেও বল গোলপোস্টের ওপর দিয়ে চলে যায়। তবে আর তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে না পারায় শেষ পর্যন্ত ম্যাচ শেষ হয় ৪-০ গোলে ব্রেন্টফোর্ডের জয় দিয়েই।

এদিকে দিনের অপর ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটি ৪-০ গোলে বর্নোমাউথকে আর আর্সেনাল ৪-২ গোলে লেস্টার সিটিকে হারিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন