বিজ্ঞাপন

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের অবহেলাসহ ৪ কারণে গার্ডার দুর্ঘটনা

August 16, 2022 | 6:49 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেছেন, চার কারণে রাজধানীর উত্তরায় নির্মাণাধীন বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের ক্রেন থেকে ১২০ টন ওজনের গার্ডার ছিটকে প্রাইভেটকারের উপর পড়েছে। এটিসহ মোট চারটি কারণে এমন দুর্ভাগ্যজনক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) গার্ডার চাপায় পাঁচ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রকাশ করে এ চার কারণ তুলে ধরেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী। সোমবারের (১৫ আগস্ট) ওই ঘটনায় মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) সকালে তার কাছে রিপোর্ট জমা দেয়।

এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী জানান, এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি চারটি কারণ জানিয়েছে। প্রথমত, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের শতভাগ অবহেলা এর কারণ। গতকাল সরকারি ছুটি ছিল। আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ বন্ধ থাকলেও কাজ চালানো হয়। ওয়ার্ক প্ল্যান ছিল না। দ্বিতীয়ত, ট্রাফিক পুলিশকে অবহিত করা হয়নি। তৃতীয়ত, দুর্ঘটনাস্থলে সড়কটির একাংশ উঁচু এবং অপর অংশ নিচু ছিল। ক্রেনটি কার্যক্রম চালানোর সময় একটি চেইন উঁচু অংশে এবং আরেকটি অপর অংশে ছিল। ফলে ক্রেনটি ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ কারণ হিসেবে তিনি জানান, বিকেলের দিকে হঠাৎ যানবাহনের সংখ্যা বেড়ে যায় এবং সেগুলো ক্রেনের খুব কাছাকাছি চলে আসে। অপারেটর বিচলিত হয়ে হঠাৎ ব্রেক করলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এর আগে, সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় জসিমউদ্দিন মোড় সংলগ্ন সড়কে থাকা আড়ংয়ের সামনে বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) স্থাপনা প্রকল্পের একটি গার্ডার প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে। এতে পাঁচ আরোহী নিহত হন। আহত হন আরও দুই আরোহী। গার্ডারের নিচে প্রাইভেটকার চাপা থাকায় তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধারকাজ চালানো সম্ভব হয়নি স্থানীয়দের পক্ষে। পরে এক্সেভেটর দিয়ে গার্ডার সরিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসবি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন