বিজ্ঞাপন

ব্যাটেল অব মাইন্ডস চ্যাম্পিয়ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ

August 18, 2022 | 10:37 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

ঢাকা: দেশের শীর্ষ মেধাবীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ‘ব্যাটেল অব মাইন্ডস ২০২১’–এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ)। কয়েক মাসব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন রাউন্ডের চ্যালেঞ্জের মধ্যদিয়ে যেতে হয় প্রতিযোগীদের। এবার এ প্রতিযোগিতার ১৯তম আয়োজন ছিল।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১৭ আগস্ট) রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত গ্র্যান্ড ফিনালেতে অংশগ্রহণকারী চারটি দলকে হারিয়ে বিজয়ী হয় আইবিএর দল ড্রোগো। দলের সদস্যরা হলেন সৈয়দ শাদাব তাজওয়ার, তাসমিম সুলতানা নওমী ও সাদীদ জুবায়ের মোরশেদ।

প্রতিযোগিতায় প্রথম ও দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছে যথাক্রমে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের দল স্ট্রেঞ্জার্স (ফাইয়াজ লাবিব, নাফিস কাজী ও শাফকাত তানজীম আহমদ) এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের দল রক, পেপার সিজর্স (মাশরুর আহমেদ জিদান, আদিলা আহমেদ ও তানভীর সিফাত)।

বিজ্ঞাপন

দেশের ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ হাজারের বেশি দল এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। বিজয়ী দল এ বছর ২৬টি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশকে বৈশ্বিক প্ল্যাটফর্মে প্রতিনিধিত্ব করবে। বৈশ্বিকভাবে বিজয়ী দলটি ব্যবসায়িক উদ্যোগের জন্য প্রাথমিক তহবিল বা সিড ফান্ডিং লাভ করবে।

গ্র্যান্ড ফিনালেতে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। নতুন প্রজন্মের মেধার পরিচর্যায় এ ধরনের ট্যালেন্ট প্ল্যাটফর্মের প্রয়োজনীয়তা ও তরুণদের দক্ষ পেশাদার হিসেবে গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএটি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান গোলাম মইন উদ্দীন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেহজাদ মুনীম, মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান জনাব সাদ জসীমসহ প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষ কর্মকর্তারা।

এ বছরের ‘ব্যাটেল অব মাইন্ডস’ প্রতিযোগিতার অংশগ্রহণকারীরা তিনটি ইএসজি (এনভায়রনমেন্ট, সোস্যাল,গভর্ন্যান্স) থিম- বৃত্তাকার অর্থনীতি (সার্কুলার ইকোনমি), কর্মক্ষেত্রের ডিজিটালাইজেশন এবং ব্লকচেইন এর মধ্যে থেকে যে কোনো একটি থিম বাছাইয়ের পর স্বকীয় ব্যবসায়িক সমাধান প্রয়োগ করে সে বিষয়ে সমস্যা মোকাবিলার চেষ্টা করেন। বিজয়ী দলের ব্যবসা বিষয়ক সমাধানটি ছিল টেক্সটাইল বর্জ্য ব্যবহার করে স্যানিটারি ন্যাপকিন প্রস্তুত করা।

বিজ্ঞাপন

২০০৪ সাল থেকে বিএটি বাংলাদেশ দেশজুড়ে এই ট্যালেন্ট প্ল্যাটফর্মের আয়োজন করে আসছে।

করোনা মহামারির কারণে বিগত দুই বছর এই প্রতিযোগিতা ভার্চুয়াল মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন