বিজ্ঞাপন

প্রতারণা মামলায় জ্যাকুলিনের পর ফাঁসলেন নোরা ফতেহি

September 3, 2022 | 3:20 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

অর্থ কেলেঙ্কারির মামলায় আগেই ফেঁসেছেন বলিউড সুন্দরী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। দীর্ঘদিন ধরেই খবরের শিরোনামে এই অভিনেত্রী। কারণ, আর্থিক কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকুলিনের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসে। ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা এবং আরও ২০টি আর্থিক প্রতারণার মামলায় নাম জড়ানোয় দিল্লির রোহিণী জেলে বন্দি ‘প্রতারক’ চন্দ্রশেখর। এবার এই মামলাতেই বিপদে বলিউডের অপর বিদেশি সুন্দরী নোরা ফতেহি। সুকেশ চন্দ্রশেখরের কাছ থেকে দামী-দামী উপহার নেওয়ার অভিযোগ আগে থেকেই রয়েছে নোরার বিরুদ্ধে। এই মামলায় শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ করল দিল্লি পুলিশের ইকোনমিক উইংস। সাত ঘন্টা ধরে জেরা করা হয় নোরাকে এমনটাই জানাচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

বিজ্ঞাপন
প্রতারণা মামলায় জ্যাকুলিনের পর ফাঁসলেন নোরা ফতেহি
নোরা ফতেহি
বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, দিল্লি পুলিশের ইকোনমিক উইংস-এর দায়ের করা এফআইআরের ভিত্তিতে এই মামলার তদন্ত করছে ভারতের কেন্দ্রীয় সংস্থা ইডি, পাশাপাশি তদন্ত করছে দিল্লি পুলিশের ইকোনমিক উইংস। এই মামলায় অভিযুক্ত প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে যুক্ত ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে ইডি এবং দিল্লি পুলিশের ইকোনমিক উইংস।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এদিন নোরাকে ৫০টিরও বেশি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেন তদন্তকারীরা। কী কী উপহার সুকেশের কাজ থেকে পেয়েছেন নোরা, কার সঙ্গে নোরার কথা হত? কীভাবে সুকেশের সঙ্গে তার পরিচয়? তারপর সম্পর্ক কেমনভাবে এগোল? এই সব তথ্য জানতে চায় পুলিশ। তবে নোরা জানিয়েছেন, জ্যাকুলিনের সঙ্গে তার কোনও সম্পর্ক নেই। আলাদা আলাদাভাবে তাদের সুকেশের সঙ্গে কথা হয়েছে। জানা গেছে, তদন্তে সহযোগিতা করছেন নোরা।

বিজ্ঞাপন
প্রতারণা মামলায় জ্যাকুলিনের পর ফাঁসলেন নোরা ফতেহি
জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ
বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা এবং আরও ২০টি আর্থিক প্রতারণার মামলায় নাম জড়ানোয় দিল্লির রোহিণী জেলে বন্দি ‘প্রতারক’ চন্দ্রশেখর। সরকারি কর্মকর্তা সেজে একাধিক ব্যক্তির থেকে টাকা হাতিয়েছেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এই মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার হন সুকেশ এবং তার স্ত্রী লীনা মারিয়া পল। গ্রেফতারির পর সুকেশের সঙ্গে জ্যাকলিন ফার্নান্দিজের ঘনিষ্ঠতার কথা প্রকাশ্যে আসে। গত বছরই জ্যাকুলিনের সঙ্গে এই সুকেশের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। যদিও এ ব্যাপারে মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন জ্যাকুলিন। প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের ঘনিষ্ঠ হিসেবে জ্যাকুলিনের নাম জড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, সুকেশ জ্যাকুলিনকে বিভিন্ন সময় সেই অবৈধ অর্থ ভাঙিয়ে ৫.৭১ কোটি টাকার উপহার দিয়েছেন। অভিনেত্রীর পরিবারের লোকজনকেও কোটি কোটি টাকা দিয়েছে সে। জ্যাকুলিনের সঙ্গে সম্পর্কে থাকবার কথা নিজের মুখেই ইডির আধিকারিকদের জানিয়েছে সুকেশ। সেই ঘটনায় মামলা দায়ের হতেই জ্যাকুলিনের বিরুদ্ধেও তদন্ত চলছে।

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন