বিজ্ঞাপন

ডলারের বিপরীতে পাউন্ডের রেকর্ড পতন

September 26, 2022 | 2:06 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ঢাকা: মার্কিন ডলারের বিপরীতে ব্রিটিশ পাউন্ড স্টারলিংয়ের মান সর্বকালের সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে গেছে। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার বাজার খোলার পরপরই পাউন্ড স্টারলিং দর হারায় প্রায় ৫ শতাংশ। এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ায় মার্কিন ডলারের বিপরীতে ব্রিটিশ পাউন্ডের দর একপর্যায়ে কমে ১ দশমিক ০৩৮২ ডলারে দাঁড়ায়। তবে যুক্তরাজ্যের স্থানীয় সময় সোমবার সকালে পাউন্ডের দর ১ দশমিক ০৬-এ স্থির হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মার্কিন ডলারের বিপরীতে পাউন্ডের এমন নজিরবিহীন পতনের একাধিক কারণ রয়েছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

গত শুক্রবার ব্রিটেনের অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেং ট্যাক্স কাটছাঁটের জন্য ৪৫ বিলিয়ন পাউন্ডের একটি প্যাকেজ ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়া মার্কিন ডলার ক্রমাগত শক্তিশালী হচ্ছে। বিশেষ করে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুদের হার বাড়ানো অব্যাহত থাকায় ডলারের দাম বাড়ছে। এতে চাপে পড়ছে পাউন্ডসহ অন্যান্য মুদ্রাগুলো।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বের অন্যান্য প্রধান প্রধান মুদ্রাও দ্রুত দর হারাচ্ছে। সোমবার সকালে এশিয়ার বাজারে ইউরো ২০ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দরে লেনদেন হচ্ছে। এছাড়া মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপির মান সর্বকালের সর্বনিম্ন পর্যায়ে।

বিনিয়োগ সংস্থা ওয়েলথির সহপ্রতিষ্ঠাতা পিটার এসকো মনে করেন, যুক্তরাজ্যে নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস সেদেশে কর কমানোর প্রতিশ্রুতি দেওয়ার ফলে পাউন্ডের মান হ্রাসের ধারা বেগবান হয়েছে। সর্বোপরি মূল্যস্ফীতি বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

প্রাক্তন টোরি চ্যান্সেলর লর্ড কেন ক্লার্ক রোববার ট্যাক্স হ্রাসের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলেছেন, এর ফলে পাউন্ড পতনের দিকে যাবে। এর একদিন পরই পাউন্ড এশিয়ার বাজারে বড় ধাক্কা খেয়েছে।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন