বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামে মণ্ডপের পথে প্রতিমার নিরাপত্তায় ছাত্রলীগ

September 30, 2022 | 9:38 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম নগরীতে মোটর সাইকেল নিয়ে নিরাপত্তা বেস্টনি তৈরি করে বিভিন্ন দুর্গাপূজার মণ্ডপে প্রতিমা পৌঁছে দিচ্ছে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। নগরীর চান্দগাঁও থানা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. নূরুন নবী সাহেদ এই কর্মকাণ্ডে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

প্রতিমাবাহী গাড়ির সামনে ও পেছনে মোটরসাইকেল নিয়ে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন মণ্ডপে মণ্ডপে যাচ্ছেন। নগরীর কালুরঘাটে স্বামী তারানন্দ মহাকালী যোগাশ্রমের মণ্ডপে প্রতিমা পৌঁছে দেয়ার পর আয়োজকরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

নূরুন নবী সাহেদ সারাবাংলাকে বলেন, ‘তারানন্দ মহাকালী যোগাশ্রমে প্রতিমা পৌঁছে দেওয়ার মধ্য দিয়ে আমাদের এই কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছে। আমরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে বিভিন্ন টিম গঠন করেছি। আজ (শুক্রবার) রাতভর চান্দগাঁও থানা ও আশপাশের এলাকায় মণ্ডপে প্রতিমা নেয়ার সময় অশুভ শক্তি যাতে কোনো অঘটন ঘটাতে না পারে, সেজন্য আমরা সজাগ আছি। মোটর সাইকেল নিয়ে প্রতিমা বহনকারী গাড়িকে আমরা নিরাপত্তা দিচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন

সন্ধ্যা পর্যন্ত পাঁচটি মণ্ডপে নিরাপদে প্রতিমা পৌঁছে দিতে ছাত্রলীদের নেতাকর্মীরা সহযোগিতা করেছেন বলে দাবি সাহেদের।

এদিকে নগরীর আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডে দুর্গাপূজা উপলক্ষে সম্প্রীতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জহরলাল হাজারীর উদ্যোগে এই সম্প্রীতি সভায় ১০১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ সময় আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দিন, চসিকের কাউন্সিলর রুমকি সেনগুপ্ত, কোতোয়ালী থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লিটন দাশ ও সাধারণ সম্পাদক তারণ দাশ ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সভায় জহরলাল হাজারী বলেন, ‘১৯৭১ সালে রক্তস্নাত মুক্তিযুদ্ধের মধ্যে দিয়ে এই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের জন্ম হয়েছে। সেই রক্তধারায় সব ধর্মের মানুষের রক্ত মিশে আছে। বাংলাদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়। মাঝে মাঝে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি বাংলাদেশের সম্প্রীতিকে নষ্ট করতে ষড়যন্ত্র করে। তারা বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে ঘিরে চক্রান্ত করে, বিরোধ ছড়াতে চায়। কোনো অপশক্তির ঠাঁই মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশে হবে না। আমরা সবাই মিলে একযোগে ধর্মীয় উৎসবে সামিল হবো।’

সারাবাংলা/আরডি/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন