বিজ্ঞাপন

শাকিব খানদের ধারাবাহিক বিয়েতে নায়িকারাও দায়ী

October 1, 2022 | 3:50 pm

জব্বার হোসেন

অন্যের চরিত্রে অভিনয় করা যায়। কিন্তু নিজের চরিত্রে যখন নিজেকে অভিনয় করতে হয়; সহজ কথায় নিজের সঙ্গে নিজের অভিনয় করে যাওয়াটা সত্যিই ভয়ংকর। এজন্য বাস্তব জীবনে কখনো অভিনয় করতে নেই। নিজের সঙ্গে না অন্য কোন ব্যক্তির সঙ্গে।

বিজ্ঞাপন

ঢাকাই ছবির স্বঘোষিত কিং খান শাকিব খান ওরফে মাসুদ রানা নিজের জীবনকে মনে করেছেন অভিনয়। পর্দার পরচুলা, কানে দুল যে বাস্তবে বেমানান তা হয়তো তিনি বুঝতে পারেন নি। তাই নিজের জীবনের সঙ্গে অভিনয় করতে গিয়েছেন।

গত কদিন ধরেই শাকিব খানের একের পর এক প্রেম, বিয়ে নিয়ে সোস্যাল মিডিয়া তোলপাড়, সমালোচনার ঝড়। শাকিব খান দুটি বা তিনটি কেন, দশটি বিয়েও করতে পারেন। তাতে কারোই আপত্তি থাকার কথা নয়। কিন্তু যে প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রতিবার তার বিয়ে জায়েয করতে হয়, সেই প্রক্রিয়া নিয়ে আপত্তি থাকা স্বাভাবিক।

বিজ্ঞাপন

আমি ভাবছি আজকে শাকিব খানের জায়গায় যদি অন্য কোনো নায়ক না হয়ে নায়িকা হতেন, কী হতো তাহলে ভাবা যায়? প্রশ্নবানে, তীর্যক মন্তব্যে রীতিমত মুমূর্ষ করে ফেলা হতো তাকে।

আমি আবারও বলছি, শাকিব খান কার সঙ্গে প্রেম করবেন, ঘুরবেন, বেড়াবেন, শোবেন তা নিতান্তই তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু এই ব্যাপারগুলোতে যখন ‘প্রতারনামূলক’ আচরন বা প্রবনতা থাকবে তখন লোকে প্রশ্ন তুলবেই। মনে রাখতে হবে, তিনি কেবল বাংলা ছবির নায়ক নন, নিজেকে ‘কিং খান’ বলে ঘোষনা দিয়েছেন। শত শত অভিনয় শিল্পীর মাথার মুকুট হয়ে বসতে চেয়েছেন। ফলে তার এই প্রতারনামূলক আচরণের সঙ্গে আরো যারা নায়ক নায়িকা রয়েছেন, অভিনয় শিল্পী রয়েছেন তাদের ইমেজও জড়িত। ফলে স্বাভাবিকভাবে অন্য নায়কদেরও যদি লোকে তার মতো ভাবে তাহলে তারা তা মেনে নিবেন কেন? ফ্লিম যদি একটা ইন্ড্রাস্ট্রি হয় তাহলে নিজেকে ‘কিং’ ঘোষনা করলে সবার কথা ভাবতে হবে।

বিজ্ঞাপন

অনেকে শরিফুল রাজ-পরীমনির দাম্পত্য ও অনাগত সন্তান নিয়ে যারপরনাই কুমন্তব্য করেছিলেন, অশ্লীল কমেন্ট করেছিলেন দিনের পর দিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এমন কি সন্তান হবার পরও অশ্লীল মন্তব্য পিছু ছাড়েনি এই তারকা দম্পতির। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে আমারতো মনে হয়, শরিফুল রাজ নেহাত সজ্জন। তার স্ত্রীর আগে দুটো বা চারটে যত বিয়েই হোক না কেন, তিনি যে সন্তানের বাবা সে ঘোষনা আগেই দিয়েছেন এবং দায়িত্বও নিয়েছেন।

অন্যদিকে শাকিব খানকে ডিএনএ টেস্টের ভয় না দেখালে তিনি সহজে সন্তানের কথা স্বীকার করেন না।

বিজ্ঞাপন

নায়িকা অপু বিশ্বাস যদি এক টিভি চ্যানেলে এসে কান্নাকাটি না করতেন তাহলে লোকে জানতো না এবং তিনি স্বীকারও করতেন না তার আব্রাহাম নামে এতো বড় ছেলে রয়েছে। আবারও একই ঘটনা। নায়িকা শবনম বুবলি ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে জানিয়েছেন তার সন্তানের কথা। অবশেষে জানা গেল, এই সন্তানের বাবাও শাকিব খান। সন্তানের বয়স আড়াই। কোন এক শুভক্ষনে সন্তানের কথা জানাবেন, যার জন্য আড়াই বছর অপেক্ষা! ধরে নিলাম তিনি খুব নাটকীয়তা পছন্দ করেন। এয়ারপোর্টে তিনি কবে আসবেন আগে থেকে লোকে জেনে তার জন্য ‘ফ্যান কিউ’ দিয়ে থাকেন। কিন্তু যত নাটুকেই তিনি হন, বিবাহিতা গোপন স্ত্রীর চাপে না পড়লে তিনি যে সন্তানের কথা স্বীকার করতেন না- এটাতো বাস্তব।

শাকিব খানের সম্পর্কগুলো খুব যে প্রেমজ তা কিন্তু মনে হয়নি। এক ধরনের বাণিজ্যিকায়নের ইঙ্গিত রয়েছে সম্পর্কে। তিনি মুভি ইন্ডাস্ট্রির অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণ করেন। শোনা যায়, নায়িকারা যতদিন তার প্রেমিকা ও সেবিকা থাকেন ততদিন ছবি পান। বিয়ের পর আবার গোপন প্রেমিকা ও সেবিকার ভূমিকা পালন করতে হয়। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে, হয়তো শর্তই থাকে তার সঙ্গে সম্পর্কের কথা প্রকাশ করা যাবে না।

বিজ্ঞাপন

তবে হিরো শাকিব খান একজন হলেও, এমন শাকিব খান সমাজে অনেক। গোপনে সম্পর্ক রাখেন, বিয়ে করেন, সন্তান হলে পরিচয় দিতে চান না, স্বীকার করতে চান না যতক্ষন না ডিএনএ টেস্টের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হন। এ সমাজে পুরুষদের এমন আচরন নতুন কিছু নয়, প্রচলিত।

আমার কষ্ট হয়, মায়া হয়, করুণা হয়- এসব অপু- বুবলিদের জন্য। যাদের যোগ্যতা আছে, অভিনয় করতে পারেন, কাজ করতে পারেন কিন্তু নিজের যোগ্যতাকে তারা যোগ্যতা মনে করেন না, শাকিব খানদের রক্ষিতা বা স্ত্রী হওয়া ছাড়া। কেন অন্যের গোপন স্ত্রী হয়ে জীবনযাপন করতে হবে? কেন স্ত্রী হলেও পরিচয় দেওয়া যাবে না? তারা নিজেদের যতোটা না মানুষ ভাবেন তার চেয়ে বেশি ‘মেয়েমানুষ’ ভাবেন নিজেরাই। নিজের প্রতি সম্মান সে-তো বহু দুরের কথা, আশ্রিতা হতেই ভালোবাসেন। তারা মনে করেন নিরাপদ, নিশ্চয়তার জীবনযাপন করছেন। কিন্তু পুরুষতান্ত্রিকতার সাপকে দুধ কলা দিয়ে পুষে কখনো নিরাপত্তা আসে না।

শাকিবদের স্ত্রীর তালিকা আরো বাড়বে। ফলে আজ যে তার স্ত্রী হয়ে আহ্লাদ প্রকাশ করছেন, কাল তিনিও সাবেক হতে বাধ্য। কেননা, পুরুষদের, স্বামীদের স্বভাব না বদলালে স্ত্রী সাবেক হবেন, আসবে অন্য, নতুন কেউ এটাই তো স্বাভাবিক।

লেখক: সম্পাদক, আজ সারাবেলা; সদস্য, ফেমিনিষ্ট ডটকম, যুক্তরাষ্ট্র

সারাবাংলা/এসবিডিই/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন