বিজ্ঞাপন

শিক্ষিকার অশ্লীল ছবি ছড়ানোর দায়ে যুবকের ৭ বছর জেল

October 4, 2022 | 8:44 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

রাজশাহী: স্কুল শিক্ষিকার অশ্লীল ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়ানোর অপরাধে মোমিনুল ইসলাম চঞ্চল (৩৮) নামের এক যুবকের সাত বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত মোমিনুল রাজশাহী নগরীর মোন্নাফের মোড় এলাকার বাসিন্দা।

রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) ইসমত আরা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানিয়েছেন, এই মামলায় দুইজন আসামি ছিলেন। তাদের খালাস দেয়া হয়েছে। ২০০৬-এর ৫৭ ধারার অপরাধের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তাই তাকে দোষী সাব্যস্তক্রমে সাত বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে এবং অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী নগরীর একটি স্কুলের শিক্ষিকাকে বিভিন্ন সময় উত্যাক্ত ও কুপ্রস্তাব দিতেন আসামি মোমিনুল ইসলাম চঞ্চল। তার কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্কুল শিক্ষিকার নামে ভুয়া আইডি খুলে হয়রানি করে। তারা অশ্লীল ছবি বানিয়ে তা প্রচার করে। বাধ্য ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে মামলা করেন ওই শিক্ষিকা। অভিযোগ তদন্ত করে চার্জশিট দেয় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

মামলার রায়ে বলা হয়েছে, এই মামলার আলামত রাষ্ট্র বরাবর বাজেয়াপ্ত করা হলো। ক্ষতিগ্রস্ত হিসেবে জরিমানার পাঁচ লাখ টাকা ভুক্তভোগী পাবেন। মামলার আসামির হাজতবাস মূলে কারাদণ্ড থেকে বাদ যাবে।

সারাবাংলা/এনইউ

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন