array(4) {
  [0]=>
  string(79) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2017/12/04-FarhanRideCarToMedical.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(20)
  [3]=>
  bool(false)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(68) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2017/12/05-FarhanCusin.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(21)
  [3]=>
  bool(false)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(79) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2017/12/04-FarhanRideCarToMedical.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(20)
  [3]=>
  bool(false)
}
array(4) {
  [0]=>
  string(68) "https://sarabangla.net/wp-content/uploads/2017/12/05-FarhanCusin.jpg"
  [1]=>
  int(30)
  [2]=>
  int(21)
  [3]=>
  bool(false)
}

সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২২ জমাদিউস-সানি ১৪৪১

রিয়াদের সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি কিশোরের মৃত্যু

ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭ | ১০:১৫ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক

বিজ্ঞাপন

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে সড়ক দুর্ঘটনায় এক বাংলাদেশি কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার দেশটির স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে  হাইয়াল মরুজ মহাসড়কে এই  মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

রিয়াদের ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ বাংলা শাখায় মহান বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান দেখতে এসে শেখ ফারহান ওই কিশোর দুর্ঘটনার শিকার হয়।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফারহান রাস্তা পার হওয়ার সময় পিকআপ ভ্যান (নং ৩৩১১ জেএক্সএ) গাড়ির ওভারস্পিডের কবলে পড়ে এ দুর্ঘটনার আক্রান্ত হয়। ওই পিকআপটির চালক ছিলেন সৌদি নাগরিক।

 

তারা আরও জানান, সে সময়  স্কুলটির শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা দৌড়ি গিয়ে গাড়িটি আটক করে। তারা তাকে একটি গাড়িতে করে নিকটস্থ আল-ওরোবা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানকার ডাক্তারদের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ধীরাব এলাকার কিং ফয়সাল হাসপাতালে নেওয়া হয়। ফয়সাল হাসপাতালের ডাক্তাররা পরীক্ষা করে দুপুর সোয়া বারোটার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করে।

স্কুলটির পর্ষদের প্রশাসনিক সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ছেলেটি তাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী নয়। ভর্তি হওয়ার জন্য ফরম সংগ্রহ করেছি সে। ১৭ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা ছিল তার।

দুর্ঘটনার সময় স্কুলে উপস্থিত ছিলেন ফারহানের ফুপু। তিনি জানান, ওর বাবা শেখ শিপন রিয়াদে একজন ব্যবসায়ী। ঢাকার উত্তরায় থাকত ফারহান। রিয়াদের বাংলা স্কুলে ক্লাস সেভেনে ভর্তি করে দেবে বলে দু মাস আগে বাংলাদেশ থেকে তাকে সৌদি আরবে আনা হয়েছিল।

দূতাবাসের শ্রম কাউন্সেলর মো. সরওয়ার আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, দুর্ঘটনা সম্পর্কে স্কুলের পর্ষদ কর্মকর্তা ও শিক্ষকরা তাকে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে দূতাবাসের পক্ষ থেকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শেখ ফারহানের লাস বর্তমানে কিং ফয়সাল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

সারাবাংলা/এসসি/আইজেকে

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন