বিজ্ঞাপন

আর্জেন্টিনার একাদশে বড় পরিবর্তন আনছেন স্কালোনি

November 24, 2022 | 1:58 am

স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপের ইতিহাসে অন্যতম বড় অঘটনের শিকার হয়েছে আর্জেন্টিনা। মেসিদের ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে খাদের কিনারে ঠেলে দিয়েছে সৌদি আরব। গ্রুপ পর্বে লিওনেল স্কালোনির দলের আর কোনো ভুলের সুযোগ নেই। আর কোনো ম্যাচে পা হড়কালেই বাদ পড়তে হবে বিশ্বকাপ থেকে। এমন সমীকরণে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে আগামী শনিবার (২৬ নভেম্বর) মাঠে নামবে দুইবারের বিশ্বচ্যামপিয়ন আর্জেন্টিনা।

বিজ্ঞাপন

সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচে বিশ্লেষকরা আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির একাদশ নির্বাচনে খুঁত ধরেছেন। স্কালোনিও মেক্সিকোর বিরুদ্ধে নামার আগে একাদশে পরিবর্তন আনবেন বলে জানা গেছে। আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমের ওলের সাংবাদিকরা কাতারে দলটির অনুশীলনের সময় উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচের আগে লিওনেল স্কোলানির ভাবনা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন বলে দাবি তাদের।

ওলের প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি আরবের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার বেশ কয়েকটি দুর্বল জায়গা চিহ্নিত করেছেন লিওনেল স্কালোনি। তবে স্কালোনি এখনই হঠকারী কিছু করতে চান না। মেক্সিকোর বিরুদ্ধে জয় পেতেই হবে তাকে। কাগজে কলমে হলেও টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে কমপক্ষে ড্র করতে হবে আর্জেন্টিনাকে। ফলে ৪৪ বছর বয়সী লিওনেল স্কালোনি কৌশল নির্ধারণে রক্ষণশী পথ অবলম্বন করছেন। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে প্রথম একাদশে স্থান না পাওয়া খেলোয়াড়দের দিকে বিশেষ মনোযোগ দিয়েছেন তিনি। স্কালোনি মনে করছেন, আর্জেন্টিনার দুর্বলতা কাটিয়ে উঠার রশদ রয়েছে দলের বেঞ্চে।

বিজ্ঞাপন

আর্জেন্টিনার একাদশে বড় পরিবর্তন আনছেন স্কালোনি

আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগ নিয়ে ভাবতে গেলে স্কালোনির কপালে চিন্তার রেখাগুলোর সংখ্যা বাড়ছে। সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচটিতে তার দলের রক্ষণভাগই ছিল সবচেয়ে দুর্বল জায়গা। আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগের অন্যতম খুঁটি কুতি রোমেরো। তবে তিনি গত ১৮ অক্টোবরের পর কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেননি। বিশ্বকাপে কাতারের আল লুসাইল স্টেডিয়ামে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে মাঠে নামার পর তার অস্বস্তি খালি চোখে ধরা পড়েছে। রোমেরোর যে আগ্রাসী মনোভাবের কারণে লিসান্দ্রো মার্টিনেজকে পেছনে ফেলে একাদশে জায়গা পেয়েছেন, ঠিক সেটাই অনুপস্থিত ছিল ওই ম্যাচে। সৌদি আরবের বিপক্ষে রোমেরো আগ্রাসী হতে পারেননি। ফলে আগামী ম্যাচে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে রোমেরোর জায়গায় লিসান্দ্রো মার্টিনেজকে খেলাতে চান কোচ। উল্লেখ্য, সম্প্রতি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে নিয়মিত খেলছেন লিসেন্দ্রো মার্টিনেজ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রক্ষণভাগের ভরসার জায়গা হয়ে উঠছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

তবে রক্ষণভাগে এটাই একমাত্র পরিবর্তন হচ্ছে তা নয়। আর্জেন্টিনার দুই ফুলব্যাক নিকোলাস তাগলিয়াফিকো এবং নাহুয়েল মোলিনাকে নিয়েও ভাবতে হচ্ছে স্কালোনিকে। দুই ফুলব্যাকের একজন বা দুইজনকেই পরিবর্তন করতে পারেন স্কালোনি। সেক্ষেত্রে রাইটব্যাকে আসতে পারেন গঞ্জালো মন্টিয়েল এবং লেফটব্যাকে মার্কোস আকুনা। উল্লেখ্য, গত বছর কোপা আমেরিকা ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে এই দুজনই ছিলেন প্রথম একাদশে। ওই ম্যাচে ১-০ গোলে জয় পেয়েছিল আর্জেন্টিনা।

 

বিজ্ঞাপন

আর্জেন্টিনার একাদশে বড় পরিবর্তন আনছেন স্কালোনি

দলের তৃতীয় মিডফিল্ডার নিয়ে কী করবেন সেটা নিয়েও বিশ্লেষণ করেছেন আর্জেন্টিনাকে কোপা আমেরিকা জেতানো এই কোচ। সৌদি আরবের বিপক্ষে পাপু গোমেজ আক্রমণে ভালো করলেও রক্ষণে ছিলেন দুর্বল। মূলত রক্ষণে সহযোগিতার জন্যই ইনজুরিতে বাদ পড়া লো সেলসোর জায়গায় পাপু গোমেজকে দলে ডেকেছিলেন স্কালোনি। মেক্সিকোর বিরুদ্ধে রক্ষণ সামলাতে আরও বেশি মনোযোগ দিতে হবে আর্জেন্টিনাকে। সৌদি আরবের চেয়ে মেক্সিকোর আক্রমণের ধার বেশি হবে, এমনটা অনুমেয়। অন্যদিকে, কৌশলগত কারণে পাপু গোমেজের চেয়ে এনজো ফার্নান্দেজ বা অ্যালেক্সি ম্যাক অ্যালিস্টার দলে ভারসাম্য দেন বেশি। এই দুজনের একজন খেললে মাঝমাঠে লিওনার্দো পারদেসের স্থিতিশীলতা বাড়তে পারে। যদিও সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচে লিওনার্দো পারদেসের খেলায় ছন্দের অভাব ছিল লক্ষণীয়। উল্লেখ্য, লিওনার্দো পারদেস সম্প্রতি ইনজুরি থেকে ফিরে বিশ্বকাপে খেলতে এসেছেন।

বিজ্ঞাপন

এনজো ফার্নান্দেজ পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকায় আলো ছড়াচ্ছেন। সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচে ৫৯তম মিনিটে মাঠে নামেন তিনি। এর আগেই আর্জেন্টিনা দুই গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে। ওই ম্যাচে স্কালোনির জন্য স্বস্তির সুবাতাস এনে দিয়েছেন একমাত্র এনজো ফার্নান্দেজ। বেনফিকা তারকা মাঠে নামার পর আর্জেন্টিনার মাঝমাঠ অনেকটা শৃঙ্খলা ফেরে। তার দ্রুত বল পাসের কারণে কয়েকটি সম্ভাবনাময় আক্রমণ শানাতে পারে আর্জেন্টিনা।

Foto: Fernando de la Orden / Enviado Especial - Entrenamiento matutino del seleccionado argentino el día después derrota vs Arabia Saudita. Solo salieron a entrenar los que no fueron titulares 23-11-2022 FTP CLARIN Entreno 037.JPG Z DelaOrden

তবে স্কালোনির চিন্তার জায়গা হলো, এনজো ফার্নান্দেজকে খেলাতে হলে লিসান্দ্রো মার্টিনেজকে জায়গা ছাড়তে হবে। এদিকে, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ আর্জেন্টিনার বর্তমান সিস্টেমের অন্যতম কারিগর। কৌশলগত কারণে স্কালোনির সিস্টেমের কেন্দ্রীয় একজন সদস্য হয়ে উঠেছেন তিনি। ফলে এনজো ফার্নান্দেজকে যদি প্রথম একাদশে খেলাতে হয় তাহলে মাঝমাঠে চেনা ছকে কিছুটা পরিবর্তন আনতে হবে।

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির জন্য এখন কঠিন সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়। মাঝমাঠে পাপু গোমেজ, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ এবং এনজো ফার্নান্দেজ— এই তিনজনের দুইজনকে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে একাদশে কিভাবে রাখা হবে এটাই এখন সবচেয়ে বড় ভাবনার জায়গা।

তবে এক্ষেত্রে মেক্সিকোর কৌশল ও শক্তিমত্তা কোচকে সিদ্ধান্ত নিতে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করবে। মূলত লিওনেল স্কালোনি মেক্সিকোর বিরুদ্ধে শারীরিকভাবে ফিট এবং কৌশলের দিক থেকে কার্যকর খেলোয়াড়দের প্রথম একাদশে অগ্রাধিকার দিতে চান।

এসব পরিবর্তন আনলে মেক্সিকোর বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনার একাদশ হতে পারে: এমি মার্টিনেজ, আকুনা, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ, ওটামেন্ডি, মন্টিয়েল, এনজো ফার্নান্দেজ বা ম্যাক অ্যালিস্টার, লিওনার্দো পারদেস, ডি পল, ডি মারিয়া, লটারো মার্টিনেজ, মেসি।

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন