বিজ্ঞাপন

ধ্বংসস্তূপে দাদির লাশের পাশেই ছিল শিশুটি, ২দিন পর জীবিত উদ্ধার

November 24, 2022 | 11:52 am

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ঢাকা: ইন্দোনেশিয়ার জাভায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত ২৭১ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এতে আহত হয়েছে দুই হাজারেরও বেশি মানুষ। ৪০ জন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। এরইমধ্যে ভূমিকম্প আঘাত হানার দুইদিন পর ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে পাঁচ বছরের এক শিশুকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। দেশটির সিয়াঞ্জুয়ের একটি বাড়ির ধ্বংসস্তূপ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। তার নাম আজকা মাওলানা মালিক। গত দুইদিন সে তার দাদির লাশের পাশে আটকা পড়েছিল।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২৩ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এসব তথ্য জানিয়েছে। সংবাদমাধ্যমটির প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, উদ্ধারকারী দল আজকা মাওলানা মালিককে নিরাপদে তুলে এনেছে।

ধ্বংসস্তূপে দাদির লাশের পাশেই ছিল শিশুটি, ২দিন পর জীবিত উদ্ধার

বিজ্ঞাপন

শিশুটির আত্মীয় সালমান আল ফারিসি (২২) জানান, আজকা আহত হয়নি। চিকিৎসক বলেছেন, দুইদিন না খেতে পেয়ে তার শরীর দুর্বল হয়ে গেছে।

তিনি জানান, সোমবার (২১ নভেম্বর) ভূমিকম্পে আজকার মা মারা গেছেন। এদিকে শিশুটি (আজকা) ঘুমের মধ্যেও বার বার তার মায়ের কথা জিজ্ঞেস করছে। সে বাড়ি যেতে চাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, সোমবার ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পটি ইন্দোনেশিয়ার জনবহুল প্রদেশে আঘাত হানে। এতে রাজধানী জাকার্তা থেকে ৭৫ কিলোমিটার দূরের শহর সিয়াঞ্জুরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভূমিকম্পে দেশটির ৫৬ হাজার ৩২০টি স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এগুলোর মধ্যে ৩১টি স্কুল, ১২৪টি উপাসনালয় ও তিনটি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রও রয়েছে।

সারাবাংলা/ইআ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন