বিজ্ঞাপন

জন্মভূমির বিপক্ষে গোল করে সুইজারল্যান্ডকে জেতালেন এমবোলো

November 24, 2022 | 5:58 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

১৯৯৭ সালে ক্যামেরুনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ব্রেল এমবোলো। এরপর তার মায়ের সঙ্গে ফ্রান্স হয়ে সুইজারল্যান্ডে পাড়ি জমান। এরপর সুইজারল্যান্ডের নাগরিকত্ব নিয়ে বয়সভিত্তিক দল হয়ে জাতীয় দলে খেলেন। ২০১৬ ইউরো, ২০১৮ বিশ্বকাপ এবং ২০২০ ইউরোর পর সুইসদের হয়ে ২০২২ বিশ্বকাপেও খেলছেন তিনি। আর কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জন্মভূমি ক্যামেরুনের বিপক্ষে গোল করে সুইজারল্যান্ডকে এনে দিয়েছেন জয়।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের ৪৮তম মিনিটে জারদান শাকিরির অ্যাসিস্ট থেকে দারুণ এক গোল করে সুইসদের এগিয়ে নেন এমবোলো। বিশ্বকাপের একটি গোল খেলোয়াড়দের অনেক আরাধ্যের ব্যাপার। কিন্তু সেই গোলের পরেও কোনো প্রকার উদযাপন করেননি এমবোলো। কেননা জন্মভূমির হয়ে বিশ্বকাপে না খেললেও জন্মভূমির প্রতি তার শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসার জায়গা থেকেই উদযাপন করা থেকে বিরতি থাকেন এমবোলো।

জন্মভূমির বিপক্ষে গোল করে সুইজারল্যান্ডকে জেতালেন এমবোলো

বিজ্ঞাপন

সুইজারল্যান্ড এবং ক্যামেরুনের মধ্যকার ম্যাচের শুরুটা কিছুটা ম্যাড়মেড়ে ছিল। দুই দলই রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলা শুরু করে। যেন কেউই গোল হজম করতে চায় না ম্যাচের প্রথমে। ধীর পাস আর রক্ষণাত্মক ভঙ্গির খেলাটা সময়ের সঙ্গে কিছুটা আক্রমণের দেখা মেলে।

শুরুতে বলের দখলে পিছিয়ে থাকলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় ক্যামেরুন। প্রথমার্ধে বেশি সুযোগ তৈরি করেছিল তারাই। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এমবোলোর গোলে পিছিয়ে পড়ে আফ্রিকার অদম্য সিংহরা। গোটা ম্যাচে আর সেই গোল শোধ দিতে পারেনি রিগোবার্ট সংয়ের শিষ্যরা।

বিজ্ঞাপন

বায়ার্ন মিউনিখের ক্যামেরুনিয়ান ফরোয়ার্ড এরিক ম্যাক্সিম চুপোমোটিং কয়েকটি দারুণ আক্রমণ করলেও প্রথমার্ধে দুই দলই তেমন কোনো গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেনি।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেন শাকিরি। মধ্যমাঠ থেকে শাকা বল নিয়ে একটু এগিয়ে গিয়ে ডান দিকে থাকা শাকিরির কাছে বাড়িয়ে দেন। এরপর দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডি বক্সে দারুণ এক ক্রস দেন শাকিরি। ছয় গজের ভেতরে ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা এমবোলোর পায়েই এসে যেন বলটি পড়ল আর আলতো টোকায় বল জালে জড়িয়ে এগিয়ে নিলেন সুইজারল্যান্ডকে।

বিজ্ঞাপন

জন্মভূমির বিপক্ষে গোল করে সুইজারল্যান্ডকে জেতালেন এমবোলো

এমবোলোর সতীর্থরা এসে তাকে ঘিরে উল্লাস করতে শুরু করলেও নির্বিকার ছিলেন তিনি। জন্মভূমির বিপক্ষে গোল করে উদযাপন না করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। শেষ পর্যন্ত এই একটি গোলই ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেয়। শেষ দিকে দুই দলই গোলের দারুণ কিছু সুযোগ তৈরি করলেও দুই দলের গোলরক্ষক সে চেষ্টা সফল হতে দেননি। এতেই ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সুইজারল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

গ্রুপ জি'র দ্বিতীয় ম্যাচে রাত ১টায় মাঠে নামবে ব্রাজিল এবং সার্বিয়া।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন