বিজ্ঞাপন

সব শঙ্কা উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা

December 1, 2022 | 2:56 am

স্পোর্টস ডেস্ক

সৌদি আরবের কাছে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে হেরে বিশ্বকাপে দুঃস্বপ্নের মতো শুরু হয় আর্জেন্টিনার। শঙ্কা জমেছিল গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়েরও। তবে শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডকে হারিয়ে সব শঙ্কা উড়িয়ে 'সি' গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলো নিশ্চিত করল আর্জেন্টিনা। পোল্যান্ডের বিপক্ষে বাঁচামরার ম্যাচের প্রথমার্ধেই এগিয়ে যাওয়ার সহজ সুযোগ হাতছাড়া লিওনেল মেসির। ম্যাচের ৩৭তম মিনিটে পেনাল্টি পেয়েও গোল করতে পারেননি মেসি। তবে দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেই অ্যালেক্সিস ম্যাক অ্যালেস্টার আর হুলিয়ান আলভারেজের গোল করেন আর তাতেই আর্জেন্টিনা ২-০ গোলের জয় পায়।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের শুরু থেকেই পোল্যান্ডের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে শুরু করে আর্জেন্টিনা। গোটা প্রথমার্ধের ৬৬ শতাংশ বল দখলে রাখে আর্জেন্টিনা। আর ১২টি শট নেয় গোলমুখে। যার মধ্যে ৭টিই ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে মাত্র ২টি শট নেওয়া পোল্যান্ডের একটিও ছিল না লক্ষ্যে।

সব শঙ্কা উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা

বিজ্ঞাপন

শুরু থেকে আক্রমণে ওঠা আর্জেন্টিনা ১০ মিনিটে দারুণ এক আক্রমণ করে। ডি বক্সের বাইরে থেকে বল পেয়ে দারুণ এক শট নেন লিওনেল মেসি তবে তা পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। এরপর একের পর এক আক্রমণে পোল্যান্ডের রক্ষণকে ব্যস্ত রাখে আলবেসিলেস্তেরা। ২৮তম মিনিটে আলভারেজ দুর্দান্ত এক শট নেন কিন্তু তার শট রুখে দেন পোলিশ গোলরক্ষক সেজনি। ফিরতি বল পেয়ে জোরালো শট নেন আকুনা কিন্তু তার শট গোলপোস্টের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়।

মিনিট চারেক পরে ডি মারিয়া দুর্দান্ত এক কর্নার নেন। তার নেওয়া কর্নার কিক সরাসরিই জালে জড়াচ্ছিল কিন্তু গোলরক্ষক কোনো রকমে বল বাইরে ঠেলে দেন। এরপর দারুণ এক আক্রমণে বল পেয়ে শট নেন আলভারেজ। তবে তার শট ঝাপিয়ে পড়ে রুখে দেন গোলরক্ষক। এরপর ফিরতি বল হাওয়ায় ভাসিয়ে মেসির দিকে পাস দেন। উঠে সেই বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে মেসির মুখে হাত লাগে সেজনির। এরপর রেফারি ভিএআর দেখে পেনাল্টি দেয় আর্জেন্টিনাকে।

বিজ্ঞাপন

সব শঙ্কা উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা

পেনাল্টি নিতে আসেন লিওনেল মেসি। ডান দিকে নেওয়া মেসির পেনাল্টি শট ঝাপিয়ে ফেরান পোল্যান্ডের গোলরক্ষক সেজনি। এতেই ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্যতে শেষ হয়।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেই পোল্যান্ডকে গুছিয়ে ওঠার সুযোগ দেয়নি আর্জেন্টিনা। বিরতির পর প্রথম মিনিটেই মোলিনার কাছ থেকে ভেসে আসা ক্রস ডি বক্সের ভেতর পেয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন অ্যালেক্সিস ম্যাক অ্যালেস্টার। আর্জেন্টিনা এগিয়ে যায় ১-০ গোলের ব্যবধানে।

আর এই গোলটিই যেন আর্জেন্টিনার আক্রমণের শুরু। এরপর একের পর এক আক্রমণে পোল্যান্ডের রক্ষণকে বিপর্যস্ত করে রাখে আলবেসিলেস্তেরা। দ্বিতীয় গোল পেতেও আর্জেন্টিনাকে বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি। ৬৭তম মিনিটে এনজো ফার্নান্দেজ দারুণ এক বল বাড়ান হুলিয়ান আলভারেজকে উদ্দেশ্য করে। ডি বক্সের ভেতর বল পেয়ে দারুণ এক ফিনিশিংয়ে ব্যবধান ২-০ করেন আলভারেজ।

বিজ্ঞাপন

সব শঙ্কা উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা

তবে এখানেই থেমে থাকেনি আর্জেন্টিনা। দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরেও দারুণ আক্রমণ তখনও চালিয়ে যাচ্ছিল। গোটা ম্যাচে ৭৩ শতাংশ বল দখলে রেখে মোট ২৩টি শট নেয় আর্জেন্টিনা যার মধ্যে ১২টিই ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে পোল্যান্ড একটি শটও নিতে পারেনি লক্ষ্যে।

শেষ পর্যন্ত ওই ২-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। আর তাতেই 'সি' গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে যায় আলবেসিলেস্তেরা। আর্জেন্টিনার কাছে হেরেও শেষ ষোলোতে তাদের সঙ্গী হয়েছে পোল্যান্ড। গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে দুটিতে জয় আর একটি হারে ৬ পয়েন্ট আর্জেন্টিনার। একটি করে জয়, হার ড্র'তে ৪ পয়েন্ট নিয়ে আর্জেন্টিনার সঙ্গী পোল্যান্ড। অন্যদিকে মেক্সিকোও একটি করে জয়, হার ড্র'তে ৪ পয়েন্ট হলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে তৃতীয়। অন্যদিকে আর্জেন্টিনাকে চমকে দিয়েও শেষ দুই ম্যাচে হেরে গ্রুপের তলানিতে থেকে শেষ করেছে সৌদি আরব।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন