বিজ্ঞাপন

গোল্ডেন বুট নয় এমবাপের লক্ষ্য বিশ্বকাপ

December 5, 2022 | 8:56 am

স্পোর্টস ডেস্ক

কাতার বিশ্বকাপের গোটা আকর্ষণই এখন পর্যন্ত নিজের করে নিয়েছেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে। একের পর এক দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিয়ে লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো কিংবা নেইমার জুনিয়রদের চেয়েও বেশি আলো কেড়েছেন এমবাপে। মাত্র তিন ম্যাচে শুরুর একাদশে খেলেই করেছেন চলতি বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোল আর গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়েও আছেন সবার উপরে। তবে গোল করে গোল্ডেন বুট জয় করা এমবাপের লক্ষ্য নয়। তার লক্ষ্য দলকে সাহায্য করে বিশ্বকাপ জেতা।

বিজ্ঞাপন

পোল্যান্ডের বিপক্ষে মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন এমবাপে। আর সতীর্থ অলিভার জিরুডকে দিয়েও করিয়েছেন একটি গোল। আর এদিন জোড়া গোল করে বিশ্বকাপে লিওনেল মেসির সমান গোল এখন এমবাপের। বিশ্বকাপে এখন এমবাপের গোল সংখ্যা ৯।

গোল্ডেন বুট নয় এমবাপের লক্ষ্য বিশ্বকাপ

বিজ্ঞাপন

এমবাপে ৯ গোল করতে খেলেছেন মাত্র ১১টি ম্যাচ। মেসি খেলেছেন ২৩টি ম্যাচ। বিশ্বকাপে এমবাপে পাঁচ বারের ব্যালন ডি অর জয়ী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকেও ছাড়িয়ে গেছেন। অবশ্য চলতি বিশ্বকাপে মেসি, রোনালদো, এমবাপে তিনজনেরই গোল সংখ্যা বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ আছে।

পোল্যান্ডের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ২৪ বছর বয়সের আগেই ৭ গোল করে পেলের রেকর্ডও ছাড়িয়ে গেলেন এমবাপে। অবশ্য, পেলে ৭ গোল পেয়েছিলেন ২১ বছর বয়সে।

বিজ্ঞাপন

গতবারের বিশ্বকাপ জয়ী এমবাপে চলতি বিশ্বকাপে এখন গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে। এবার ৪ ম্যাচে এমবাপের গোল সংখ্যা ৫।

তবে বিশ্বকাপে কেবল গোল করে যাওয়ায় প্রধান লক্ষ্য নয় এমবাপের। তার প্রধান লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়। এব্যাপারে এমবাপে বলেন, ‘আমার প্রধান লক্ষ্যই হলো- বিশ্বকাপ জেতা। এখন পরবর্তী ম্যাচ কোয়ার্টার ফাইনাল, যা বিশ্বকাপের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ।’

বিজ্ঞাপন

গোল্ডেন বুট নয় এমবাপের লক্ষ্য বিশ্বকাপ

কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত পাঁচটি গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতারর তালিকায় এককভাবে শীর্ষে আছেন কিলিয়ান এমবাপে। গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে এরপর তিন গোল করে আরও বেশ কয়েকজন আছেন।

বিজ্ঞাপন

তবে বিশ্বকাপে কেবল দলকে সাহায্য করতেই এসেছেন এমবাপে। লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়। এমবাপে বলেন, ‘আমি এখানে গোল্ডেন বুট নয়, বিশ্বকাপ জিততে এসেছি। আমি যদি বুট জিতি, তাহলে অবশ্যই খুশি হবো। কিন্তু আমি এখানে ওটার জন্য আসিনি। আমি জাতীয় দলকে সাহায্য করতে এসেছি।’

আগামী শনিবার সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ফ্রান্স।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন