বিজ্ঞাপন

অতিরিক্ত সময়েও অমীমাংসিত স্পেন-মরক্কো ম্যাচ টাইব্রেকারে

December 6, 2022 | 11:35 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

কাতার বিশ্বকাপের শেষ ষোলোতে মরক্কো মুখোমুখি হয় স্পেনের। নক আউট পর্বের ম্যাচে দুই দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের মীমাংসা হয়নি নির্ধারিত ৯০ মিনিটে। আর তাতেই খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। তবে সেখানেও দুই দলের কেউই গোলের দেখা পায়নি। আর তাতেই ম্যাচের ফলাফল মীমাংসার জন্য খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে।

বিজ্ঞাপন

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে দুর্দান্ত পারফর্ম করে নক আউট পর্বে টিকিট কাটে মরক্কো। গ্রুপ পর্বে বেলজিয়ামের বিপক্ষে জয় আর ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে ড্র করে অপরাজিত থেকে শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেয় মরক্কো। আর শেষ ষোলতে প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় স্পেনকে। শেষ ষোলোর ম্যাচে স্পেনের বিপক্ষে মরক্কোর ম্যাচ নির্ধারিত ৯০ মিনিট গোলশূন্য ড্র হয়। আর তাতেই ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ৯ টায় এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে মাঠে নামে দুই দল। ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ, প্রতি আক্রমণে একে অপরের পরীক্ষা নিতে থাকে স্পেন ও মরক্কো।

বিজ্ঞাপন

গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে ছোট পাসে সুন্দর ফুটবল উপহার দিয়ে আসছিল স্পেন। নক আউট পর্বে মরক্কোর বিপক্ষেও তার ব্যতিক্রম নয়। বল দখলে রেখে শুরু থেকেই দারুণ আক্রমণ করে আসছিল লা রোজারা। তবে মরক্কোর দুর্দান্ত রক্ষণভাগে ফাটল ধরাতে পারেনি স্প্যানিশরা। অন্যদিকে প্রতি আক্রমণে বেশ কয়েকবার স্পেনের মনে ভয় ধরালেও শেষটা টানতে পারেনি মরক্কো।

অতিরিক্ত সময়েও অমীমাংসিত স্পেন-মরক্কো ম্যাচ টাইব্রেকারে

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের ৭ মিনিটে ডান দিক থেকে আক্রমণে যায় মরক্কো। তবে তা আটকে দেন সার্জিও বুস্কেটস। এরপর ম্যাচের ৯ মিনিটে আক্রমণে ওঠে স্পেন। তবে তা আটকে যায় মরক্কান রক্ষণে। ম্যাচের ১০ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে ফ্রি কিক পায় মরক্কো। সেখান থেকে আশরাফ হাকিমির নেওয়া শট অল্পের জন্য চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। ম্যাচের ১৫ মিনিটে ডান দিক থেকে ক্রস বাড়ান নওসাইর মাজরাউই। তবে তা নিজের গ্লাভসে নেন স্পেনের গোলরক্ষক উনাই সিমন। ম্যাচের ২০ মিনিটে বাম দিক থেকে ক্রস বাড়ান আশরাফ হাকিমি। তবে তা ক্লিয়ার করে দেন এমিরিক লাপোর্তে।

এরপর বেশ কয়েকটি দুর্দান্ত আক্রমণ করে স্পেন তবে তা রুখে দিয়ে রক্ষণ দুর্গের শক্তির জানান দেয় মরক্কো।  এভাবে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য ড্রতে।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে দুই দলই দারুণ কয়েকটি আক্রমণে ভয় ধরায় প্রতিপক্ষের মনে। তবে শেষ পর্যন্ত জমাট বেঁধে থাকে দুই দলেরই রক্ষণ। আর কেউই নির্ধারিত ৯০ মিনিটে পায়নি জালের দেখা। এতেই ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন