বিজ্ঞাপন

‘নয়াপল্টনে নিহত মকবুল কোনো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না’

December 7, 2022 | 11:29 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত মকবুল হোসেনের (৩৫) বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি কোনো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না বলে দাবি স্বজনদের।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে স্ত্রী হালিমা খাতুন, শিশু সন্তান মিথিলা (৭) এবং বোন আয়েশা বেগম ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এসে মকবুলের মৃতদেহ শনাক্ত করেন।

নিহত মকবুলের বড় ভাই আব্দুর রহমান জানান, তারা মিরপুর ১১ নম্বরের বাউনিয়া বাঁধ লালমাটি এ ব্লকের টিনশেড কলোনীতে থাকেন। বাসাতেই মকবুলের নিজের একটি বুটিক কারখানা আছে। তিনি কোনো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘মকবুল সকাল ৯টার দিকে বাসা থেকে এক হাজার টাকা নিয়ে বের হয়। রায়সাহেব বাজারে কারখানার মাল কিনতে যাওয়ার কথা ছিল তার। পরে টেলিভিশনের মাধ্যমে জানতে পারি মকবুল নামে একজন পল্টনে পুলিশের গুলিতে মারা গেছে। পরে ঢাকা মেডিকেলে এসে তার মৃতদেহ দেখতে পাই।’

আব্দুর রহমান জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার উদিমেরচড় গ্রামে।

বিজ্ঞাপন

মকবুলেরর স্ত্রী হালিমা আক্তার বলেন, ‘সকালে কারখানার মাল কিনতে পুরান ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল। পরে তার স্বামীর এক বন্ধু তাকে ডেকে নিয়ে যায়। সন্ধ্যার দিকে লোক মারফত জানতে পারি তার স্বামী হাসপাতালে আছে।’

হালিমা বলেন, ‘আমাদের ঘরে মিথিলা (৮) নামে এক মেয়ে সন্তান আছে। সে একটি মাদরাসায় দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে। আমার স্বামী কোনো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিল না। তবে তিনি যেভাবেই মারা যাক না কেন, যারা দায়ী তাদের বিচার চাই।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন