বিজ্ঞাপন

‘একজন মানুষের ন্যূনতম চাহিদা পূরণের দায়িত্ব রাষ্ট্রের’

February 6, 2023 | 11:22 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: একজন মানুষের মিনিমাম রিকুয়্যারমেন্ট ফুলফিল করার দায়িত্ব রাষ্ট্রের বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

বিজ্ঞাপন

রোববার (৫ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্ট অডিটোরিয়ামে বিচারপতি এফ আর নাজমুল আহসানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্বরণসভা ও স্মারক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আপিল বিভাগে নিয়োগপ্রাপ্ত হলেও শপথ নিতে না পারা প্রয়াত হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি এফ আর নাজমুল আহসান স্মরণে স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, ‘প্রয়াত বিচারপতি নাজমুল আহসান ছাত্র জীবনে- ছাত্র ইউনিয়ন বা কমিউনিস্ট পার্টি করতেন তা আমরা জানি। ছাত্র ইউনিয়ন বা কমিউনিস্ট পার্টির তাত্ত্বিকতার দিকে আমি যাচ্ছি না। এটাও বলতে চাচ্ছি না যে, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে যেখানে ৯০ শতাংশ মানুষ মুসলমান সেখানে কমিউনিজমের গ্রহণযোগ্যতা কতটুকু, সেটাও তাত্ত্বিকতা বা প্র্যাকটিসের ব্যাপার কিন্তু উনি কেন ছাত্র জীবনে ছাত্র ইউনিয়ন বা কমিউনিস্ট পার্টি করতে গেলেন? আমার কাছে যেটা মনে হয়, সাধারণ মানুষের প্রতি তার যে প্রচন্ড মমত্ববোধ, যদি তাদের জন্য কিছু করা যায়। যদি সমাজে বিবর্তন বা পরিবর্তন আনা যায়, যাতে করে অন্তত মিনিমাম যে রিকুয়্যারমেন্ট (ন্যূনতম চাহিদা বা প্রয়োজনীয়তা) মেটাতে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

‘আমি মনে করি বিচারপতি নাজমুল আহসান মিজান একজন সাকসেসফুল মানুষ ছিলেন। উনি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। যেহেতু ওনি সাধারণ মানুষের কথা ভেবে প্রথম জীবনে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন এবং কমিউনিস্ট পার্টিতে নাম লিখিয়েছিলেন। তবে তিনি অনেক ঐতিহাসিক জাজমেন্ট (রায়) দিয়েছেন। সেগুলো সম্পর্কে আপনারাও জানেন। তার ঐতিহাসিক জাজমেন্টের মাধ্যমে তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন।’

স্মরণসভার শুরুতে প্রয়াত বিচারপতি জনাব এফ আর এম নাজমুল আহসানের সহধর্মিণী নিলুফা সামসুন্নাহার সূচনা বক্তব্য দেন।

হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার তোফায়েল হাসানের সঞ্চালনায় আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের সভাপতিত্বে স্বরণসভা ও স্মারক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আপিল বিভাগের বিচারপতি বোরহান উদ্দিন, বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম, বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকী এবং বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন।

বিজ্ঞাপন

এ সময় আপিল বিভাগের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমসহ হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিরা উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/কেআইএফ/ইআ

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন