বিজ্ঞাপন

ট্রাম্পের বক্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ফ্রান্স ও ব্রিটেনের

May 6, 2018 | 1:43 pm

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

বিজ্ঞাপন

২০১৫ সালে ফ্রান্সের প্যারিস হামলা ও ব্রিটেনে ২০১৬ সালে ছুরি হামলার ঘটনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেওয়া বক্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, শুক্রবার (৪ মে)  ডালাসে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল রাইফেল অ্যাসোসিয়েশনের কনভেনশনে (এনআরএ) দেওয়া বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, কঠোর বন্দুক আইন থাকার পরও, ২০১৫ সালে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলা ও যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের ছুরি হামলা থামানো যায়নি। এ সময় তিনি বন্দুক ব্যবহারের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে  বলেন, ‘কোনো কর্মক্ষেত্রে কারও হাতে যদি বন্দুক থাকে এবং কোনো সন্ত্রাসী যদি সেখানে হামলা করতে যায়, তবে ওই সন্ত্রাসীকে প্রতিহত করা সম্ভব হবে।’

বিজ্ঞাপন

ট্রাম্পের এই বক্তব্যের প্রতিবাদে সবচেয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলান্দ। ২০১৫ সালের প্যারিস হামলার সময় তিনি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ছিলেন।

শনিবার ( ৫ মে) এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট প্যারিস হামলা নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন তা লজ্জাজনক। ফ্রান্সের মূল্যবোধ সম্পর্কে তার ধারণা থাকার দরকার ছিল। যুক্তরাষ্ট্র আমাদের মিত্র। কিন্তু কাউকে খাটো করে বন্ধুত্ব সম্পর্ক রক্ষা করা যায় না। আমি শুধু ওই দিন যারা আক্রন্ত হয়েছিল তাদের কথাই চিন্তা করছি।’

বিজ্ঞাপন

ফ্রান্সের এলিসি প্যালেসের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে নিহতদের প্রতি সম্মান দেখানোর আহ্বান জানাচ্ছি।

২০১৫ সালের ১৩ নভেম্বরের ওই হামলায় অন্তত একশ ৩০ জন নিহত ও কয়েকশ মানুষ আহত হন।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্যে ছুরি হামলা নিয়ে ট্রাম্প বলেন, কঠোর বন্দুক আইন থাকার পরও, সেখানে ছুরি হামলাকে থামাতে পারেনি দেশটি। নাম প্রকাশ না করে লন্ডনের একটি হাসপাতালকে ‘যুদ্ধ এলাকা’ হিসেবে ঘোষণা দেন তিনি।

ট্রাম্পের এই বক্তব্যের সমালোচনা করে যুক্তরাজ্যের সাবেক আইনমন্ত্রী চার্লি ফ্যালকোনার এক টুইট বার্তায় বলেন, ট্রাম্পের মনে রাখা উচিত তার দেশের হত্যার হার যুক্তরাজ্যের  তুলনায় পাঁচ গুন বেশি।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, অস্ত্র সহজলভ্য করে দিলে বা মানুষের হাতে অস্ত্র তুলে দিলে হামলার হার কমে যাবে একথা বিশ্বাস করার মতো পৃথিবীতে একজন লোকও  খুঁজে পাওয়া যাবে না। একমাত্র ট্রাম্পই এ ধরণের ভাবনা ভাবতে পারেন।

সারাবাংলা/আইএ

** দ্রুত খবর জানতে ও পেতে সারাবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখুন: Sarabangla/Facebook

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন