বিজ্ঞাপন

অবশেষে রায়হান রাফির পরিচালনায় শাকিব খান

December 12, 2023 | 5:35 pm

এন্টারটেইনমেন্টঁ করেসপনডেন্ট

গত বছর রায়হান রাফির পরিচালনায় শাকিব খান করার কথা ছিল ‘প্রেমিক’। সে ছবিটি শেষ পর্যন্ত শুটিং ফ্লোরে না গড়ালেও নতুন একটি ছবিটির ঘোষণা এলো সোমবার (১১ ডিসেম্বর)। বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিতব্য ছবিটির নাম ‘তুফান’।

বিজ্ঞাপন

প্রযোজনায় বাংলাদেশ থেকে রয়েছে আলফা আই ও চরকি। আর ভারত রয়েছে কলকাতার এসভিএফ। সোমবার এক আড়ম্বর আনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ছবিটির ঘোষণা দেওয়া হয়। আগামী ইদ-উল-আযহায় মুক্তি পাবে এটি।

পরিচালক রায়হান রাফী সিনেমাটা নিয়ে বেশ উত্তেজিত। তিনি বলেন, ‘আমি খুবই এক্সসাইটেড। কারণ এক সাথে তিনটি বড় প্রতিষ্ঠান এক সুতোয় গেঁথে সিনেমাটি বানাচ্ছে। আমাদের বাংলাদেশের একমাত্র সুপারস্টার শাকিব খান তার সাথে এটা আমার প্রথম সিনেমা। সবচেয়ে বড় তিনটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, একজন সবচে বড় সুপারস্টার যখন এক সাথে হয় তখন আসলে এই সিনেমা নিয়ে আশা করাই যায়। কেবল তো আমরা কাজ শুরু করলাম। সবার দোয়া চাই। তবে এটা নির্দ্বিধায় বলতে পারি তুফান বাংলা সিনেমার জন্য একটা মাইলফলক হতে যাচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন

শাকিব খান নিজেও বেশ আনন্দিত কাজটির সাথে যুক্ত হয়। তিনি বলেন, ‘’আমি সব সময় বলেছি, বাংলাদেশি সিনেমার সম্ভাবনা অপার। শুধু দেশে নয়, দেশের বাইরেও বড় একটা বাজার আছে। সারা বিশ্বে ৩০ কোটি বাংলা ভাষাভাষী রয়েছেন, তাদের শুধু ভালো মানের সিনেমা উপহার দিতে হবে। তিনটা বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যখন এক হয় তখন সম্ভাবনাটা আরও বড় হয়। বাকিটা সিনেমাপ্রেমীরাই ঠিক করে নেবেন।’

আলফা-আই স্টুডিওজ লি.-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল বলেন, ‘আলফা-আই স্টুডিওস সবসময় বাংলাদেশের বিনোদন জগতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। একটি অগ্রগামী চিন্তার প্রোডাকশন হাউস, আমরা আগেই বুঝতে পেরেছিলাম যে বাঙালি দর্শক ভালো মানের কনটেন্ট দেখতে চায়। আমরা প্রতিবারই সেটা দেয়ার চেষ্টা করেছি। এবার আলফা, এসভিএফ এবং চরকির এক হয়েছি বাংলা চলচ্চিত্রের বাজারকে উন্নত করতে এবং বিশ্বব্যাপী দর্শকের কাছে পৌঁছাতে।

বিজ্ঞাপন

‘বর্তমানে বাংলাদেশে শাসন করছে এমন দুটি সেরা প্রতিভাকে একত্রিত করছি আমরা। একমাত্র সুপারস্টার শাকিব খান এবং বর্তমান সময়ের হিট পরিচালক রায়হান রাফি এক হয়েছে দর্শককে আরেকটি ব্লকবাস্টার সিনেমা দেয়ার জন্য।’

২৮ বছর ধরে যারা একাই বদল করে চলেছে বাংলা সিনেমার ইতিহাস! রেইনকোট, চোখের বালি, অটোগ্রাফ, ২২শে শ্রাবণ এর মতো অসংখ্য ফিল্ম দিয়ে যারা সমৃদ্ধ করেছে বাংলা ফিল্ম-এর ভান্ডার। বলছি এসভিএফ-এর কথা।

এসভিএফ-এর ডিরেক্টর ও কো-ফাউন্ডার মহেন্দ্র সোনি বলেন, ‘আমরা বাংলা সিনেমায় একটি নতুন অধ্যায়ের দ্বারপ্রান্তে। কারণ এসভিএফ, আলফা-আই, চরকি এবং মেগাস্টার শাকিব খান-কে সাথে নিয়ে এমন একটি প্রযোজনা সামনে আনতে যাচ্ছি যা গল্প বলার স্কেলকে পুনরায় সংজ্ঞায়িত করবে।

বিজ্ঞাপন

এই কলাবরেশন বাংলা চলচ্চিত্রকে অভূতপূর্ব বৈশ্বিক উচ্চতায় পৌঁছে দিতে প্রস্তুত। যা আমাদের সবার জন্য একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত হয়ে থাকবে।’

চরকির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ‘বাংলা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি জন্য সুসময় চলছে। আমাদের জন্যও খুব আনন্দের সময়। আলফা-আই, চরকি ও এসভিএফ মিলে বাংলা ভাষাভাষীর দর্শককে হলমুখী করতে ও আন্তর্জাতিক মানের কনটেন্ট দেয়ার জন্য এই উদ্যেগ নিয়েছে। কেননা এতো বড় ক্যানভাসে এতো বড় আয়োজনের বাংলা সিনেমা তথা বাঙ্গালী দর্শকের জন্য এই সিনেমা আমাদের উপহার হবে।’

সারাবাংলা/এজেডএস

Tags: , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন