বিজ্ঞাপন

ডিমেরিট পয়েন্ট পেল মিরপুরের পিচ

December 13, 2023 | 9:29 am

স্পোর্টস ডেস্ক

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মিরপুরের পিচ নিয়ে সমালোচনা চলছিল শুরু থেকেই। শেষ পর্যন্ত আইসিসির শাস্তির মুখে পরল মিরপুরের সেই উইকেট। ২য় টেস্টের মিরপুরের পিচকে ‘অসন্তোষজনক’ বলেছে আইসিসি। একই সাথে এই পিচকে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও দিয়েছেন তারা।

বিজ্ঞাপন

২য় টেস্টের প্রথম ঘণ্টা থেকেই পিচে ধরেছে স্পিন। মাত্র ৫ ওভার পর থেকেই স্পিনারদের বোলিংয়ে এনেছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক। পুরো ম্যাচ জুড়েই ছিল বোলারদের দাপট, ৩৬ উইকেটের মাঝে ৩০টিই নিয়েছেন স্পিনাররা। ব্যাটাররা যেন খেলতেই পারছিলেন না। মাত্র ১৭১ ওভারেই আসে ম্যাচের ফলাফল। ম্যাচ শেষে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টিম সাউদি বলেছিলেন, এটি তার ক্যারিয়ারে দেখা সবচেয়ে বাজে পিচ। মিরপুরের উইকেট নিয়ে সমালোচনা হয়েছে দেশের সাবেক ক্রিকেটারদের মাঝেও।

মিরপুরের পিচ নিয়ে আইসিসির কাছে রিপোর্ট জমা দিয়েছিলেন ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুন। সেখানে তিনি বলেন, ‘মাঠের আউটফিল্ড খুব ভালো ছিল। কিন্তু পিচ মনে হয় ভালোভাবে প্রস্তুত করা হয়নি। প্রথম সেশন থেকেই অসমান বাউন্স দেখেছে পিচ। বল অনেক সময় ব্যাটারদের কাঁধের উপর দিয়ে গিয়েছে, কখনো অনেক নিচু দিয়ে।’

বুনের এমন রিপোর্টের পর আইসিসি মিরপুরের পিচকে ‘অসন্তোষজনক’ বলেছে। যদিও পিচ নিয়ে আইসিসি সাধারণত এই শব্দটি ব্যবহার করে না। একই সাথে মিরপুরের পিচকে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও দেওয়া হয়েছে। ২০১৮ সালে একবার ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিল এই পিচ। ২০২১ সালে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির পিচ হিসেবে মিরপুরকে ‘সাধারণ’ মানের বলেছিল আইসিসি। এই ডিমেরিট পয়েন্ট পাচ বছর বজায় থাকবে। এর মাঝে যদি ডিমেরিট পয়েন্ট সব মিলিয়ে ছয়ে দাড়ায়, তাহলে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হবে মিরপুর।

বিজ্ঞাপন

বিসিবি অবশ্য এই ডিমেরিট পয়েন্টের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবে।

 

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এফএম

Tags: , , , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন