বিজ্ঞাপন

মাছের অভয়াশ্রম রক্ষায় পশুর নদীতে কোস্ট গার্ডের অভিযান

March 24, 2024 | 4:39 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

বাগেরহাট: উপকূলীয় অঞ্চলে অবৈধ মৎস্য আহরণ, মাদক ও মানবপাচার রোধ, অবৈধ জালের ব্যবহার, বনজ সম্পদ রক্ষা, নৌযান ও নৌপথে জানমালের নিরাপত্তা বিষয়ে স্থানীয় জেলে, মাঝি ও পেশাজীবীদের সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে কোস্ট গার্ড। রোববার (২৪ মার্চ) সকালে মোংলা বন্দরের পশুর নদীতে মাছের অভয়াশ্রম রক্ষায় অভিযান পরিচালনা করেছে সংস্থাটি।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বের অন্যতম প্রাকৃতিক ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট সুন্দরবনের চার ভাগের ৩ ভাগ এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন কাজ করছে। মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণে অবৈধভাবে আহরিত জাটকা, চিংড়ি রেনু পোনা, ফাইস্যা পোনা ইত্যাদির সাথে জড়িতদেরকে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে।

গত ১ মার্চ হতে আগামী ৩০ এপ্রিল দুই মাস অভয়াশ্রম রক্ষায় সরকার এ নির্দেশনা দিয়েছে। এ প্রেক্ষিতে সুন্দরবনের অভয়ারণ্য সমূহে যাতে অবাধে মাছ না ধরতে পারে সেজন্য নিয়মিতভাবে রুটিন টহল ও বিভিন্ন অপারেশন পরিচালনা করে আসছে কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন।

এছাড়াও মোংলা বন্দরে আগত বাণিজ্যিক জাহাজের নিরাপত্তা দেওয়া এবং বিভিন্ন সময় সমুদ্রে ডুবে যাওয়া জাহাজ, ট্রলার এবং বোটের উদ্ধার কাজে এগিয়ে আসে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন।

বিজ্ঞাপন

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ইকবাল হোসেন জানান, কোস্ট গার্ডের খতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে চোরাকারবারি, পাঁচারকারী, বিদেশি মদ, গাঁজা, ইয়াবা, হরিণের মাংস, মাথা ও চামড়া, পেইন্ট, জেলিপুশ করা চিংড়ি, চিংড়ি রেনু পোনা, ফাইস্যা পোনা, কচ্ছপ, কাঁকড়া, অবৈধ বোট ও অবৈধ জাল আটকসহ বিভিন্ন অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

মোংলা, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা ও সুন্দরবনের বিভিন্ন এলাকায় ১টি বেইস ও ১৪টি স্টেশন/আউটপোস্ট নিয়ে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমও

Tags: , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন