বিজ্ঞাপন

শিক্ষা-স্বাস্থ্য-পর্যটনে সিঙ্গাপুরের সহায়তা চান চসিক মেয়র

May 5, 2024 | 8:45 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পর্যটন খাতে সিঙ্গাপুরের সহায়তা চেয়েছেন সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। এ প্রস্তাব দেশটির সরকারকে অবহিত করে বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছেন সিঙ্গাপুরের হাই কমিশনার ডেরেক লোহের।

বিজ্ঞাপন

রোববার (৫ মে) সকালে বাংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের হাই কমিশনার নগরীর টাইগারপাসে অস্থায়ী নগর ভবনে গিয়ে চসিক মেয়রের সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

সাক্ষাতে মেয়র বলেন, ‘চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নাগরিক সেবার জন্য ৮২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ৫৬টি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিচালনা করছে। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য সিঙ্গাপুর কারিগরি সহায়তা, প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তি সরবরাহের মাধ্যমে সহায়তা করতে পারে। এ ছাড়া নদী-সমুদ্র-পাহাড়বেষ্টিত চট্টগ্রামের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে কাজে লাগিয়ে পর্যটন সম্ভাবনার বিকাশে সিঙ্গাপুর বিনিয়োগ করতে পারে।’

জবাবে সিঙ্গাপুরের হাই কমিশনার ডেরেক লোহে বলেন, ‘বাংলাদেশের বিষয়ে সিঙ্গাপুর খুবই আন্তরিক। বাংলাদেশের কর্মীরা কঠোর পরিশ্রমী ও সৎ। সিঙ্গাপুর বিভিন্ন খাতে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশিকে নিয়োগ দিয়েছে এবং ভবিষ্যতে আরও দেবে। বিভিন্ন দেশে সিঙ্গাপুর যে কো-অপারেশন প্রোগ্রাম চালায়, তার আওতায় চট্টগ্রামের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পর্যটন খাতের প্রসারে কীভাবে সহায়তা করা যায় সেটা বিবেচনা করা হবে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘বে-টার্মিনালসহ বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে চায় সিঙ্গাপুর। বন্দরনগরী চট্টগ্রামের সঙ্গে সিঙ্গাপুরের ভৌগলিক মিল আছে। চট্টগ্রাম সিঙ্গাপুরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারে। বাংলাদেশ থেকে খাদ্য আমদানির পাশাপাশি আরও বিভিন্ন খাতে সহায়তা করতে চায় সিঙ্গাপুর।’

এ সময় চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-পরিচালক মিচেল লি, হাই কমিশনের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স শিলা পিল্লাই ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/টিআর

Tags: , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন