বিজ্ঞাপন

অস্ট্রেলিয়ার কাছে বড় হারে সুপার এইট শুরু বাংলাদেশের

June 21, 2024 | 10:28 am

স্পোর্টস ডেস্ক

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যাটারদের ব্যর্থতায় অস্ট্রেলিয়াকে ১৪১ রানের টার্গেট দিয়েছিল বাংলাদেশ। রান তাড়া করতে নেমে ডেভিড ওয়ার্নারের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সহজেই সেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেছে অস্ট্রেলিয়া। শেষ পর্যন্ত সুপার এইটে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে বৃষ্টি আইনে ২৮ রানে হারিয়ে জয় দিয়েই দ্বিতীয় রাউন্ড শুরু করল অজিরা।

বিজ্ঞাপন

১৪১ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনিং জুটিতে ঝড় তোলেন ট্রাভিস হেড ও ডেভিড ওয়ার্নার জুটি। দুজনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে অসহায় লেগেছে বাংলাদেশের বোলারদের। পাওয়ারপ্লেতে দারুণ ব্যাটিং করে ম্যাচ বাংলাদেশের নাগালের বাইরে নিয়ে যান এই দুই বাঁহাতি ব্যাটার।

পাওয়ারপ্লে শেষে বৃষ্টি নামায় কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে খেলা। এরপর আবার খেলা শুরু হলে প্রথম আঘাত হানেন রিশাদ হোসেন। ৩ চার ও ২ ছয়ে ২১ বলে ৩১ রান করে রিশাদের বলে বোল্ড হন হেড। মিচেল মার্শকেও ফেরান রিশাদ, ১ রান করে মার্শ ফিরেছেন এলবিডব্লিউ হয়ে।

অন্য প্রান্তে ওয়ার্নার অবিচল ছিলেন। দারুণ সব শটে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরিও। ৫ চার ও ৩ ছয়ে ৩৫ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই অবশ্য হানা দেয় বৃষ্টি। ১১ ওভার ২ বলের মাথায় অস্ট্রেলিয়ার রান যখন ২ উইকেটে ১০০, তখন তুমুল বৃষ্টিতে আবার বন্ধ হয় খেলা। এই খেলা আর শুরু হয়নি। বৃষ্টি আইনে ২৮ রানে জয় নিয়েই তাই মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।

বিজ্ঞাপন

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি বাংলাদেশের। কোন রান না করেই স্টার্কের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন তানজিদ তামিম। এরপর শান্ত-লিটন জুটি বেশ আশা জাগিয়েছিল। অজি বোলারদের হতাশ করে এই দুই ব্যাটার দারুণভাবেই এগিয়ে নিয়েছিলেন বাংলাদেশকে। দুই ব্যাটারের মাঝে শান্তই ছিলেন বেশি আক্রমণাত্মক।

শান্ত-লিটন জুটি ৫০ তোলার পর বড় স্কোরের স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ। তবে ২৫ বলে ১৬ রান করা লিটনকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙ্গেন অ্যাডাম জাম্পা। চারে নামা রিশাদ ম্যাক্সওয়েলের বলে ফিরেছেন মাত্র ২ রানে। দলের সর্বোচ্চ স্কোরার শান্ত ফিফটির কাছে গিয়েও হতাশ হয়েছেন। ৩৬ বলে ৪১ রান করে জাম্পার বলে এলবিডব্লিউ হয়েছেন শান্ত।

শান্ত ফেরার পর দলের হাল একাই ধরেছেন তাওহিদ হৃদয়। দারুণ আগ্রাসী মুডে ব্যাটিং করে দলের স্কোর ১০০ পার করেছেন তিনিই। স্টোয়নিসকে পরপর দুই বলে দুটি ছক্কাও মেরেছেন। তবে ফিফটি পাননি তিনিও। ২ চার, ২ ছয়ে ২৮ বলে ৪০ রান করে কামিন্সের বলে আউট হয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

তাকে ফিরিয়েই ২০তম ওভারে এবারের বিশ্বকাপের প্রথম হ্যাটট্রিক তুলে নিয়েছেন কামিন্স। নিজের আগের ওভারের শেষ দুই বলে মাহমুদউল্লাহ ও মাহেদিকে আউট করেছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১৪০ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস। ২৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে সেরা বোলার কামিন্সই।

 

সারাবাংলা/এফএম

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন