বিজ্ঞাপন

ট্রাম্প-কিম বৈঠক সামনে রেখে চলছে প্রস্তুতি

June 5, 2018 | 6:15 pm

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

বিজ্ঞাপন

আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য ট্রাম্প-কিম বৈঠক নিয়ে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া। ওই দিন স্থানীয় সময় সকাল ৯ টায় বৈঠক শুরু হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্র পরিত্যাগ না করলে তাদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবে না যুক্তরাষ্ট।

বিজ্ঞাপন

তবে এই বৈঠক সম্পর্কে দুদেশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই বলা হয়নি। এমনকি সিঙ্গাপুরের কোন শহরে এই বৈঠক হবে সে সম্পর্কেও কিছু জানানো হয়নি।

কোরিয়া উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ করার উদ্যোগ এই বৈঠকের অন্যতম আলোচ্যসূচি বলে বিশ্লেষকরা বলেছেন। এমনকি দুই কোরিয়ার যুদ্ধের অবসানের ঘোষণাও আসতে পারে এই বৈঠক থেকে।

বিজ্ঞাপন

শুরু থেকেই এই বৈঠক নিয়ে নানা ধরনের অনিশ্চয়তা ছিল। গত ৩১ মে বৈঠক নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের ডান হাত হিসেবে খ্যাত জেন কিম ইয়ং-চোল। তিনি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

এই বৈঠক নিয়ে অনিশ্চয়তা দূর করতে গত ২৬ মে চমকপ্রদভাবে দ্বিতীয়বার পানমুনজামের বেসামরিক অঞ্চলে সাক্ষাৎ করেন কোরিয়ার দুই নেতা। কিম ও মুনের মধ্যে দুই ঘণ্টার ওই বৈঠকে ‘মার্কিন-উত্তর কোরিয়া সম্মেলন’ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে আলোচনা হয় বলে সাংবাদিকদের জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

ট্রাম্প-কিম বৈঠক সামনে রেখে চলছে প্রস্তুতি

গত ২৭ এপ্রিল ৬৫ বছর পর প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসেন দুই কোরিয়ার নেতা। ওই বৈঠকের মাধ্যমে শান্তির পথে এগিয়ে যেতে দুই দেশ অঙ্গীকার করে। ঐতিহাসিক ওই বৈঠকে দুই দেশের সম্পর্কের উন্নয়ন, অর্থনৈতিক সহযোগিতা ছাড়াও সম্ভাব্য শান্তিচুক্তি নিয়ে আলোচনা হয়। ওই বৈঠকের আগে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্রের কাজ সাময়িক বন্ধের ঘোষণা করেন কিম।

বিজ্ঞাপন

কিম-মুনের বৈঠকের পর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পারমাণবিক পরীক্ষা অঞ্চলের সুরঙ্গ ধ্বংস করে উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণের সময়ের সঙ্গে মিল রেখে নিজেদের সময় আধাঘণ্টা এগিয়ে নেয় দেশটি। এর মধ্যে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপদেষ্টা জন বোল্টনের এক বিতর্কিত মন্তব্যের কড়া জবাব দিয়ে বিবৃতি দেয় উত্তর কোরিয়া। এরপর এই বৈঠক নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। এর জের ধরে মার্কিন-উত্তর কোরিয়া সম্মেলন বাতিল ঘোষণা করেন ট্রাম্প।

সারাবাংলা/এমআইএস

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন