বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০১৯ ইং , ৬ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সানগ্লাস উপহার নিয়ে জরিমানা গুনলেন ট্রুডো

জুন ২৪, ২০১৮ | ২:৩৬ অপরাহ্ণ

স্রেফ একজোড়া সানগ্লাস’র জন্য কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে ১০০ ডলার জরিমানা করেছে দেশটির এথিকস কমিশন।

একজোড়া সানগ্লাস গিফট হিসেবে নেওয়ার পর তা যথাসময়ে ঘোষণা না দিয়ে দেশের প্রচলিত কনফ্লিক্ট অব ইন্টারেস্ট আইন ভঙ্গ করেছেন ট্রুডো। আর সে কারণেই তাকে এই জরিমানা করেছে দেশটির সংসদীয় নীতি পর্যবেক্ষক সংস্থা এথিকস কমিশন।

সানগ্লাসটি উপহার হিসাবে নেয়ার পর ৩০ দিনের মধ্যে তা ঘোষণা করতে ব্যর্থ হন ট্রুডো। আর সে কারণেই তাকে জরিমানা করা হয়েছে। এথিকস কমিশনার মারিও ডনকে উদ্ধৃত করে সংবাদমাধ্যমগুলো এই খবর দিচ্ছে।

ট্রুডোর প্রেস সেক্রেটারি এলিনোর ক্যাটেনারো এক ই-মেইল বার্তায় বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে বলেছেন, আসলে গিফটটি হাতে পাওয়ার পর ৩০ দিনেও তার ঘোষণা দেওয়া হয়নি, যা ছিলো স্রেফ এক প্রশাসনিক ভুল।

বিজ্ঞাপন

কানাডার গ্রামাঞ্চলীয় পিইআই কমিউনিটির প্রধান ম্যাকলুহান গত গ্রীষ্মে ট্রুডোকে ফেলো আর্থলিংস নামের একটি স্থানীয় প্রস্তুতকারকের বানানো দুই জোড়া চশমা উপহার দেন। বাজারে এই দুজোড়া চশমার খুচরা দর ৩০০ ও ৫০০ ডলার।

পরে ২০১৭ সালে ভিয়েতনাম সফরের সময় ট্রুডোকে ওই সানগ্লাসে দেখা যায়। যা প্রস্তুতকারকদের জন্য ছিলো বড় ধরনের পাওয়া।

ফেলোর আর্থলিংসের এক জোড়া সানগ্লাস পরছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী এটি ছিলো আমাদের জন্য দারুণ উত্তেজনার একটি বিষয়, বলেন প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র সিডনি সেগি।

ম্যাকলুহানের অফিস থেকে এ্ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে কিছু বলা হয়নি। তবে জানানো হয়েছে গত জুনে তারা জাস্টিন ট্রুডো ও তার স্ত্রী সোফি গ্রেগইরকে ওই দুই জোড়া সানগ্লাস উপহার দিতে পেরে খুশিই ছিলো।

স্থানীয়ভাবে তৈরি চামড়ার খোলে রাখা সানগ্লাস দু’জোড়া সত্যিই সংগ্রহে রাখার মতো।

তবে কনফ্লিক্ট অব ইন্টরেস্ট-এর আওতায় কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর ধরা পড়া এটাই প্রথম নয়।

২০১৬ সালে তিনি ক্রিসমাসের ছুটি কাটাতে প্রাইভেট হেলিকপ্টারে চেপে আগা খান আয়ল্যান্ডে গিয়েছিলেন তখনও তার বিরুদ্ধে রুল জারি করা হয়েছিলো। প্রধানমন্ত্রী পদমর্যাদার প্রভাব খাটিয়েই তার ওই হেলিকম্পার যাত্রা বলেই ধরে নেওয়া হয়।

সারাবাংলা/এমএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন