Ad

বিজ্ঞাপন

আল্লাহ-নবীর সঙ্গে বেয়াদবি: ‘কবর রচনা’ চান বাবুনগরী-কাসেমী

November 15, 2020 | 11:46 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: হেফাজতে ইসলামের আমির নির্বাচিত হওয়ার পর জুনায়েদ বাবুনগরী নাস্তিক-মুরতাদ এবং মহানবীর শত্রুদের ‘কবর রচনা করার’ আহ্বান জানিয়েছেন। আর নবনির্বাচিত মহাসচিব নুর হোসাইন কাসেমী ‘আল্লাহর সঙ্গে বেয়াদবি’ করলে সরকারিভাবে মৃত্যুদণ্ডের বিধানের দাবি তুলেছেন।

Ad

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৫ নভেম্বর) চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় বড় মাদরাসা হিসেবে পরিচিত আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মইনুল ইসলাম মাদরাসায় হেফাজতে ইসলামের প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের সামনে ১৫১ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়। এসময় জুনায়েদ বাবুনগরী ও নুর হোসাইন কাসেমী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

হেফাজতের নেতাকর্মী পরিবেষ্টিত এই আয়োজনে জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, ‘আশা করব সামনেও হাক্বানী ওলামায়ে কেরামরা ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য, শুদ্ধ অর্থে, ইসলামবিরোধী যত অপশক্তি আছে তাদের নির্মূল করার জন্য কাজ করবেন। কাদিয়ানীকে নির্মূল করার জন্য, নাস্তিক মুরতাদদেরকে নির্মূল করার জন্য এবং যারা আমার নবী মোহাম্মদের শত্রু, নবীকে নিয়ে কটাক্ষ করে, কটুক্তি করে তাদের কবর রচনা করার জন্য...। এবং ইসলামের পক্ষের কাজ করার জন্য প্রয়োজনে যদি আপনাদের ডাক দেওয়া হয়, আপনারা আসবেন নি ইনশাল্লাহ?’

Ad

বিজ্ঞাপন

উপস্থিত হেফাজত কর্মীরা সমস্বরে ‘নায়ারে তকবির আল্লাহু আকবর’ স্লোগান দেন দিয়ে সমর্থন জানান। আমীর নির্বাচিত হয়ে দেওয়া প্রথম প্রকাশ্য বক্তব্যের শুরুতে জুনায়েদ বাবুনগরী সারাদেশের ওলামায়ে কেরাম, মাদরাসার ছাত্র এবং সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান।

আমির পদ পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি অস্বীকার করেছি। আমাকে আমির না করার জন্য আমি বলেছি। তারপরেও এই মুরুব্বীরা আমির বানাইয়া দিছে। আমি এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব যেন পালন করতে পারি সেজন্য আপনারা দোয়া করবেন। আমার কমিটির ওলামায়ে কেরামদের জন্য দোয়া করবেন।’

উপস্থিত হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা তখন ‘বাবুনগরী এগিয়ে চলো আমরা আছি তোমার সাথে’ স্লোগান দেন এবং উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

মহাসচিব নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথম প্রকাশ্য বক্তব্যে নুর হোসাইন কাসেমী আহমদিয়া সম্প্রদায়কে অমুসলিম ঘোষণার দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘কাদিয়ানী সম্প্রদায় অমুসলমান। মুসলমানের নাম ব্যবহার করা তাদের জন্য অবৈধ। আমাদের দাবি হলো, অবিলম্বে কাদিয়ানীদের সরকারিভাবে অমুসলমান ঘোষণা করা হোক। হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানরা যেভাবে অমুসলমান নাগরিক হিসেবে এদেশে বসবাস করে- কাদিয়ানীদেরও অমুসলমান নাগরিক হিসেবে এ দেশে বসবাসের অধিকার আছে।’

‘আল্লাহপাকের হাবিবের শানে যদি বেয়াদবি করা হয় তার জন্য সরকারিভাবে মৃত্যুদণ্ডের আইন করতে হবে’- বলেন কাসেমী।

নতুন নির্বাচিত আমির জুনায়েদ বাবুনগরী হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তিনি হাটহাজারীর দারুল উলুম মইনুল ইসলাম মাদরাসার শিক্ষা সচিব এবং প্রধান শায়খুল হাদিস হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

নতুন নির্বাচিত মহাসচিব নুর হোসাইন কাসেমী হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা নায়েবে আমির হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ঢাকার জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা মাদরাসার প্রিন্সিপাল। তিনি কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটভুক্ত রাজনৈতিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব।

সারাবাংলা/আরডি/পিটিএম

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad