Ad

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কায় টাইগারদের তিন দিনের কোয়ারেন্টাইন

April 5, 2021 | 7:43 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

করোনাকালের খেলাধুলায় খেলোয়াড়দের সবচেয়ে অপছন্দের বিষয় সম্ভবত জৈব সুরক্ষা বলয় এবং কোয়ারেন্টাইন! করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বে সব ধরনের খেলা বন্ধ ছিল। তারপর খেলা শুরু হয়েছে ঠিকই তবে প্রতিনিয়ত কঠিন একটা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হচ্ছে খেলোয়াড়দের। অনেকটা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হচ্ছে দিনের পর দিন। মাঝে মাঝে কোয়ারেন্টাইনে ঘরবন্দি থাকতে হচ্ছে, সেটা যে কষ্টকর তা অকপটে বলে যাচ্ছেন প্রায় সব খেলোয়াড়ই। আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরে এই কোয়ারেন্টাইন যন্ত্রণা কিছুটা লাঘব হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের। শ্রীলঙ্কায় মাত্র তিন দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বাংলদেশি ক্রিকেটারদের।

Ad

বিজ্ঞাপন

বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এক থেকে দুই সপ্তাহ পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের। বাংলাদেশ দলই সম্প্রতি নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে দুই সপ্তাহর কোয়ারেন্টাইন করেছে। তার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল বাংলাদেশ সফরে এলে তাদের এক সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়েছিল। সে হিসেবে শ্রীলঙ্কা সফরে যন্ত্রণা কিছুটা লাঘবই হলো বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের।

শ্রীলঙ্কায় ক্রিকেটারদের তিন দিনের কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। সোমবার (৫ এপ্রিল) সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। বাড়তি ক্রিকেটার নিয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কাতেও কী তেমনটা করা হবে?

Ad

বিজ্ঞাপন

এমন প্রশ্নের উত্তরে জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, 'শ্রীলঙ্কায় তিন দিনের কোয়ারেন্টাই। নিউজিল্যান্ডের মতো ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন নয়। এমন না যে দুইদিন লাগবে পৌঁছাতে (শ্রীলঙ্কায় যেতে)। শ্রীলঙ্কায় যেতে খুব কম সময় লাগে, কোয়ারেন্টাইন সময়সীমাও কম আছে। এ ক্ষেত্রে ইমার্জেন্সি হলে ৩-৪ দিন আগে প্লেয়ার নেওয়া যাবে। যেহেতু দুইটা টেস্ট ম্যাচ, বহরটা নিউজিল্যান্ডের মত বড় হোক সেটা আমরা চাই না। চাই বহরটা ছোট হোক। সেসব আলোচনা করেই স্কোয়াড দেওয়া হবে।'

এবারের নিউজিল্যান্ড সফরে ছয় ম্যাচ খেলে প্রতিটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ। চোট সমস্যাও ভুগিয়েছে বাংলাদেশকে। চোটের কারণে ওয়ানডে সিরিজ শেষে দেশে ফিরে আসতে হয় পেসার হাসান মাহমুদকে। চোটের কারণে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দুই ম্যাচ খেলতে পারেননি মুশফিকুর রহিমও। হাবিবুল জানালেন, এই দুজনের ফিটনেস সম্পর্ক পূর্ণ ধারণা পাওয়ার পরই আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য স্কোয়াড দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, 'ফিটনেস নিয়ে একটা চিন্তা বিষয় আছে। আমি যতটুক জানি মুশফিক ফিট হয়ে যাবে। আরও কয়েকটা জায়গায় চিন্তার বিষয় আছে। হাসান মাহমুদের ফিটনেস ইস্যু আছে, আমরা তার ফাইনাল রিপোর্ট আজকে বা কালকে পেয়ে যাবো। ফিটনেস ইস্যুর কারণেই আমরা দলটা এখনো দিতে পারিনি। আজ কালকের মধ্যে সবার রিপোর্ট পেয়ে যাবো। এরপরই দল চূড়ান্ত করে ফেলবো।'

আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি টেস্ট খেলতে চলতি মাসের ১২ তারিখে শ্রীলঙ্কা যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়ানোর কথা ২১ এপ্রিল, দ্বিতীয়টি ২৯ তারিখ।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএইচএস

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad