Ad

বিজ্ঞাপন

জনগণের নিরাপত্তার কথা ভেবেই বিধিনিষেধ আরোপ: অর্থমন্ত্রী

April 7, 2021 | 5:45 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জনগণের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই কঠোর বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। জনগণের সেফটি-সিকিউরিটির কথা মাথায় রেখে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, যে সমস্ত কারণে লকডাউন দেওয়া হয়েছে সেটা সবাই জানে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টরা ব্যবস্থা নেবেন। তবে দেশের মানুষের যেন ক্ষতি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখছি।

Ad

বিজ্ঞাপন

বুধবার (৭ এপ্রিল) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় ও সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা শেষে এক ভার্চুয়াল সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘করোনার ক্ষতি মোকাবিলায় সবগুলো প্রণোদনার প্যাকেজ প্রধানমন্ত্রীর ধারণা ও পরিকল্পনায় হয়েছে। অর্থমন্ত্রণালয় থেকেই তা ঘোষণা করা হয়েছে এবং আমরা এসব প্যাকেজ বাস্তবায়ন করেছি।’

Ad

বিজ্ঞাপন

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বব্যাংক আমাদের সম্পর্কে বেশ উচ্ছ্বসিত ধারণা দিলেও মূলত আমাদের কাজ আমাদেরই করতে হবে। আমাদের থিউরেটিক্যাল আসপেক্টে না গিয়ে প্রাকটিক্যাল আসপেক্টে ভাবতে হবে।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘চাল আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে আমাদের যতটুকু প্রয়োজন সেই পরিমাণ। কিন্তু সেখান থেকে যখন কোনো সাপ্লাইয়ার (সরবরাহকারী) তা সময় মতো দিতে পারে না, তখন আমরা এটাকে পরিবর্তন করে আরেক জায়গায় চলে যাই।’

মুস্তফা কামাল বলেন, ‘আমাদের খাদ্য মন্ত্রণালয় কৃষি মন্ত্রণালয়কে সঙ্গে নিয়ে একদম ইন্টিগ্রিটেড ওয়েতে দেখে, কী পরিমাণ চাল দরকার। তারপর নির্ধারণ হয় আমাদের প্রয়োজন এবং আমাদের আগামীর প্রয়োজন। এছাড়াও আমাদের নেক্সট ফসল কখন আসবে, সেটাকে মাথায় রেখে কাজটি করতে হয়।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বেশি চাল কিনবে না। বেশি কিনলে আমাদের কৃষক সম্প্রদায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আবার গমও বাড়তি কিনব না, যাতে আমাদের ভোক্তাদের সাফার (ভুগতে) করতে না হয়।’

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad