Ad

বিজ্ঞাপন

৩য় উইকেটে শান্ত-মুমিনুলের রেকর্ড জুটি

April 22, 2021 | 1:32 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

২০১৮ সালে চট্টগ্রামে এই শ্রীলংকার বিপক্ষে মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিম গড়েছিলেন তৃতীয় উইকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি। এরপর অপেক্ষা তিন বছরের। ২০২১ সালে শ্রীলংকার বিপক্ষেই ভাঙল রেকর্ড গড়া ওই জুটি। ক্যান্ডির পাল্লেকেলে স্টেডিয়ামে টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হককে সঙ্গে নিয়ে তরুণ নাজমুল হোসেন শান্ত গড়লেন তৃতীয় উইকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি।

Ad

বিজ্ঞাপন

লংকা সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে ১৫২ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে টাইগারদের। তামিম ইকবাল ৯০ রানে আউট হলে উইকেটে আসেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। আর তরুণ নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে গড়েন রেকর্ড গড়া জুটি।

প্রথম দিনে শান্ত ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট শতক তুলে নেন আর মুমিনুল অপরাজিত থাকেন ৬৪ রানে। সেই সঙ্গে এই জুটি প্রথম দিন শেষ করে ঠিক ১৫০ রানে। তখন দুইজনই উইকেটে থিতু। শান্ত দেখছেন ইনিংসটি আরও বড় করার আশা আর মুমিনুল দেখছেন বিদেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট শতকের।

Ad

বিজ্ঞাপন

ক্যান্ডিতে গতকাল ৯০ ওভারে ২ উইকেটে ৩০২ রান তুলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাল্লেকেলে টেস্টের প্রথম দিন শেষ করেছিল বাংলাদেশ। সেখান থেকে আজ শুরুটা করেছেন মুমিনুল-শান্ত। প্রথম দিনের মতো পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনেও টাইগারদের দাপট দেখল সিংহের রাজ্য। মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ ওই ২ উইকেটে ৩৭৮ রান তোলে।

মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়ার আগেই অবশ্য নিজের ১১তম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন মুমিনুল। টেস্ট ক্যারিয়ারে এর আগে যে ১০টি সেঞ্চুরি মুমিনুল হক করেছেন এর সবক’টিই দেশের মাটিতে। তন্মধ্যে সাতটি নিজ বিভাগীয় শহর চট্টগ্রামে ও তিনটি ঢাকায়। অর্থাৎ দেশের বাইরে একটিবারের জন্যও তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার ছুঁয়ে দেখা হয়নি লাল সবুজের এই টেস্ট স্পেশালিস্টের। অবশেষে লঙ্কায় গিয়ে সেই খরা কাটালেন প্রিন্স অব কক্সবাজার। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনেই তুলে নিলেন নিজের ১১তম টেস্ট সেঞ্চুরি ও বিদেশের মাটিতে প্রথম।

এরপরেই শান্ত তুলে ছুঁয়ে ফেললেন দেড়শ রানের মাইলফলক। তবে তখনও থামার কোনো নাম নেই এই দুই টাইগার ব্যাটারের। তখন লক্ষ্য রেকর্ডের দিকে। মধ্যাহ্নত বিরতিতে যাওয়ার আগে ২২৬ রানের তোলে এই জুটি। আর বিরতির পর ফিরে ইনিংসের ১২২তম ওভারে রেকর্ড স্পর্শ করে এই জুটি। এই রিপোর্ট লেখা অবদি বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৩৯০ রান। মুমিনুল ১১৩ ও শান্ত ১৬১ রানে অপরাজিত আছেন।

হাসারাঙ্গার করা ১২২তম ওভারের তৃতীয় বলে শান্ত স্কয়ার লেগের দিকে বল ঠেলে দিয়ে ৫০৪ বলে ২৩৬ রানের রেকর্ড গড়া জুটি স্পর্শ করেন। আর পরের ওভারে লাকমালের করা প্রথম বলে আরও একটি সিঙ্গেল নিয়ে ২৩৭ রানের রেকর্ড জুটি গড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক।

সব উইকেটের জুটির হিসেবে এটি এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের ৫ম সর্বোচ্চ রানের জুটি। ২০১৭ সালে নিউজিল্যান্ডের ওয়েলিংটনে ৫ম উইকেটে সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম গড়েছিলেন দেশের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের জুটি। সাকিব-মুশি ৫ম উইকেটে ৩৫৯ রানের জুটি গড়েছিলেন। এরপর দ্বিতীয় স্থানে আছে ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েসের ৩১২ রানের জুটি। খুলনার আবু নাসের স্টেডিয়ামে এই জুটি গড়েছিলেন এই টাইগার ব্যাটার।

২০১৩ সালে মোহাম্মদ আশরাফুল ও মুশফিকুর রহিমের ৫ম উইকেটে ২৬৭ রানের জুটিটা আছে তিন নম্বরে। মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমের ৪র্থ উইকেটে ঢাকাতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৬৬ রানের জুটি আছে চার নম্বরে। আর নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হকের তৃতীয় উইকেটে গড়া এই জুটি এখন টাইগারদের পঞ্চম সর্বোচ্চ রানের জুটি।

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad