Ad

বিজ্ঞাপন

সাংবাদিক প্রবীর সিকদারসহ সুধীসমাজের প্রশংসায় ফরিদপুর যুবলীগ

May 7, 2021 | 11:06 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

ফরিদপুর: ফরিদপুর জেলা যুবলীগের নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষিত হয়েছে। যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল দায়িত্ব গ্রহণের পর এই প্রথম যুবলীগের কোনো জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Ad

বিজ্ঞাপন

গত ৬ মে (বৃহস্পতিবার) যুবলীগের চেয়ারম্যান এবং সাধারণ সম্পাদকের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ফরিদপুর জেলা যুবলীগের ২১ সদস্য বিশিষ্ট এই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষিত হয়।

কমিটি ঘোষণার পরপরই ফরিদপুরের বিশিষ্টজনদের প্রশংসা কুড়োচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল। পাশাপাশি নতুন নেতাদের জানানো হচ্ছে শুভেচ্ছা।

Ad

বিজ্ঞাপন

ফরিদপুরের বাসিন্দা ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, বরেণ্য সাংবাদিক প্রবীর সিকদার তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘ফরিদপুর জেলা আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটিকে অভিনন্দন। আমার সবচেয়ে ভালো লাগা, কমিটির ২১ জনের কেউই হাইব্রিড লীগের নয়।’

এদিকে ফরিদপুরের সন্তান ইনডিপেনডেন্ট টিভির প্রধানমন্ত্রী বিটের সিনিয়র সাংবাদিক অনিমেষ কর লিখেছেন, ‘ফরিদপুরের জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি হলো। যার আহ্বায়ক জিয়াউল হাসান মিঠু। অভিনন্দন মিঠু ভাই। আশা করি আপনার নেতৃত্বে ঘুরে দাঁড়াবে ফরিদপুর যুবলীগ। যুবলীগের শীর্ষ নেতৃত্ব পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ শেখ ফজলে শামস পরশ এবং মাঈনুল হোসেন খান নিখিলকে ধন্যবাদ যোগ্য মানুষকে যোগ্য জায়গায় স্থান দেওয়ার জন্য। আমি যখন ফরিদপুর জিলা স্কুলের ছাত্র জিয়াউল হাসান মিঠু তখন ফরিদপুরের তুখোড় ছাত্রনেতা। সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের জিএস নির্বাচিত হয়েছিলেন, পরবর্তীতে ভিপিও নির্বাচিত হয়েছিলেন। আমাদের কৈশোর এবং তারুণ্যের নায়ক ছিলেন তিনি। স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে তার ছিল বলিষ্ঠ ভূমিকা। তার নেতৃত্বে সেই আন্দোলনের মিছিল করেছি আমরাও। পরবর্তীকালে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের সময় রাজপথে কখনও পিছপা হননি জিয়াউল হাসান মিঠু। দেখতে চাই ফরিদপুরে যুবলীগকে মানবিক সংগঠন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন মিঠু ভাই।’

এটিএন বাংলার প্রধানমন্ত্রী বিটের সাংবাদিক ও ফরিদপুরের সন্তান নিয়াজ জামান সজিব লিখেছেন, ‘অভিনন্দন ফরিদপুর জেলা যুবলীগের ২১ জনকেই। ধন্যবাদ জানাই, যুবলীগের সম্মানিত চেয়ারম্যান দূরদর্শী রাজনীতিবিদ শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলকে সময়োপযোগী কমিটি প্রদানের জন্য। বিশ্বাস রাখি, এমন নেতৃত্বই পারবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখতে, ফরিদপুরের যুবসমাজকে ঐকবদ্ধ করতে। ’

ইতোমধ্যেই যুবলীগ সারাদেশব্যাপী বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে বিশিষ্টজনদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় যুবলীগের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডের এমন মহৎ তৎপরতাকে সবাই ইতিবাচক হিসেবেই দেখছে।

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad