Ad

বিজ্ঞাপন

শত্রু হয়ে ক্যাম্প ন্যুয়ে ফিরছেন সুয়ারেজ

May 8, 2021 | 2:25 am

স্পোর্টস ডেস্ক

২০১৪ ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপের পর লিভারপুল ছেড়ে বার্সেলোনায় নাম লিখিয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। এরপর অর্ধযুগ ধরে বার্সেলোনার ৯ নাম্বার জার্সি গায়ে চড়িয়ে মাতিয়েছেন মাঠ। ২০২০ সালে এসে বার্সা ছেড়ে পাড়ি জমান অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। যদিও স্বেচ্ছায় নয়, বার্সা এক প্রকার জোর করেই তাকে দল থেকে বের করে দিয়েছে। আর এবার সেই সুয়ারেজই শত্রু হয়ে ফিরেছেন বার্সেলোনায়। যে ক্যাম্প ন্যুতে এক সময় বার্সার জার্সি পরে শতশত গোলের উদযাপন করেছেন সেই ক্যাম্প ন্যুতেই শনিবার (৮ মে) অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের জার্সিতে মাঠ মাতাবেন সুয়ারেজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টা ১৫ মিনিটে বার্সেলোনা আতিথ্য নেবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

Ad

বিজ্ঞাপন

প্রায় অর্ধযুগ লিওনেল মেসির পাশে বার্সার জার্সিতে মাঠ মাতিয়েছেন সুয়ারেজ। তবে সেসব এখন কেবলই অতীত। ভিন্ন দলের জার্সিতে লিওনেল মেসিদের বিপক্ষে সুয়ারেজকে দেখাটা একটু অন্যরকম হবে বলে মনে করেছেন বর্তমান বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কোম্যান নিজেও। গত অগাস্টে কোম্যান বার্সেলোনার কোচের দায়িত্ব নেওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই সুয়ারেসকে ফোন করে জানিয়ে দেন, দলের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় নেই তিনি।

আর তাতেই সেপ্টেম্বরে বার্সা ছেড়ে নাম লেখান অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে। যোগ দেওয়ার পর গত নভেম্বরেই সাবেক দলের বিপক্ষে খেলতে দেখা যেতে পারতো সুয়ারেজকে। কিন্তু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় ঘরের মাঠে অ্যাটলেটিকোর ১-০ গোলে জয়ের সেই ম্যাচে খেলা হয়নি তার। ফিরতি লড়াইয়ের আগের দিন কোম্যানের সংবাদ সম্মেলনে স্বাভাবিকভাবে উঠল সুয়ারেজের প্রসঙ্গ।

Ad

বিজ্ঞাপন

কোম্যান বলেন, 'সুয়ারেজকে ক্যাম্প ন্যুতে অ্যাটলেটিকোর জার্সিতে দেখাটা একটু অন্যরকমই লাগবে। সেটা সুয়ারেজের নিজের কাছে এবং আমাদের দলের খেলোয়াড়দের জন্যও হবে অদ্ভুত। তবে আমরা সবাই পেশাদার এবং প্রত্যেকেই তার দলের জন্য সর্বোচ্চটা উজাড় করে দেবে। ওদের কীভাবে আটকানো যায়, তা নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে। আমাদের ভালো খেলতে হবে, কারণ ওদের রক্ষণ বেশ শক্ত। সুযোগ তৈরি করতে আমাদের সেরাটা দিতে হবে।'

লা লিগার শিরোপা পুনরুদ্ধারের জন্য অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে জয়ের কোনো বিকল্প নেই বার্সেলোনার সামনে। ৩৪ ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগের শীর্ষে অ্যাটলেটিকো। সমান ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট করে নিয়ে পরের দুটি স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। সেভিয়ার পয়েন্ট ৭০। আর তাই তো শিরোপা জয়ের জন্য বার্সাকে এই ম্যাচ জিততেই হবে। কারণ এই ম্যাচ হারলে অ্যাটলেটিকোর সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান হয়ে দাঁড়াবে পাঁচ। যা লিগের এরপরেই তিন ম্যাচে কমিয়ে আনাটা কিছুটা অসম্ভবই হয়ে দাঁড়াবে।

দলের শিরোপা জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করে কোম্যান বলেন, 'আমি মনে করি না এই ম্যাচের ফল শিরোপা নির্ধারণ করে দেবে। এরপর আরও তিনটি ম্যাচ বাকি থাকবে। তবে ম্যাচটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য আমাদের প্রতিটা ম্যাচ জিততে হবে। আমি নিশ্চিত, যদি আমরা প্রতিটা ম্যাচ জিততে পারি, তাহলে আমরাই চ্যাম্পিয়ন হব।'

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad

বিজ্ঞাপন

Ad