সোমবার ২০ মে, ২০১৯ ইং , ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

লিউকেমিয়ার ৭ লক্ষণ

এপ্রিল ২১, ২০১৯ | ৭:৪৯ অপরাহ্ণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক

জটিল রক্তরোগ লিউকেমিয়ায় (leukemia) আক্রান্ত হয়ে প্রতিবছর মারা যান অসংখ্য মানুষ। বেশিরভাগ মরণঘাতী রোগ আগেভাগে ধরা পড়লে সঠিক চিকিৎসায় সুস্থ হওয়া সম্ভব। অনেক রোগের কিছু লক্ষণ আগেভাগে প্রকাশ পায়।

তবে, সব লক্ষণ বা যেকোনো একটি বা দু’টি লক্ষণ মিলে গেলেই যে সেই রোগ হয়েছে, তা কিন্তু নয়। তবে, এক বা একাধিক লক্ষণ দেখা দিলেই যত দ্রুতসম্ভব চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করে চিকিৎসা শুরু করা উচিত।

লিউকেমিয়ার লক্ষণ আগেভাগে ধরা পড়বে— এমন নাও হতে পারে। তবে কয়েকমাস ধরে যদি কিছু লক্ষণ একটানা দেখা যায়, তবে সতর্ক হতে হবে। আসুন দেখে নেই লিউকেমিয়ার এমন সাতটি লক্ষণ, যা দেখা দিলে সতর্ক হতে হবে আপনাকে।

বিজ্ঞাপন

১ ফ্যাকাসে ত্বক, ক্লান্তিতে ভেঙে পড়া শরীর

এনিমিয়া বা রক্তস্বল্পতায় রক্তের লোহিত রক্তকণিকার ঘাটতি দেখা দেয়। লোহিত রক্ত কণিকা সারাশরীরে রক্তের মাধ্যমে অক্সিজেন সরবরাহ করে। তাই লোহিত রক্তকণিকার ঘাটতি দেখা দিলে শরীরের কোষগুলোতে অক্সিজেন স্বল্পতা দেখা দেয়। এতে ভয়াবহ ক্লান্তি দেখা দেয়, যাকে আমরা ফ্যাটিগ বলি। এছাড়াও ত্বকের রঙ হয়ে যায় ফ্যাকাসে। অনেকসময় ফ্লুর লক্ষণ দেখা দিতে পারে।

২ অল্পেই রক্তপাত হওয়া ও আঘাত লাগা

সামান্য আঘাতেই রক্তপাত বা রক্ত জমার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে লিউকেমিয়া হলে। এমনকি নাক দিয়ে বা প্রসাবের সঙ্গে রক্ত যেতে পারে। দাঁত ব্রাশ করার সময় দাঁতের গোড়া অথবা মাড়ি দিয়ে রক্তপাত হতে পারে। দীর্ঘদিন ধরে এমন সমস্যা হতে থাকলে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিৎ।

৩ সহজেই সংক্রমণ হওয়ার প্রবণতা

যদি ঘন ঘন অসুখ হতে থাকে, তবে সচেতন হতে হবে। জ্বর, নিউমোনিয়া, মাথাব্যথা, মুখে ঘা, ত্বকে র‍্যাশ ইত্যাদি ধরনের অসুখ যদি প্রায়ই দেখা দিতে থাকে। আবার নিরাময় হতে দীর্ঘ সময় প্রয়োজন হয় তাহলে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করে রক্ত পরীক্ষা করা জরুরি।

৪ ফুলে যাওয়া লিম্ফ নোড

লিউকেমিয়া হলে অনেকসময় শরীরের বিভিন্ন অংশ যেমন— গলা, বগল বা কুঁচকিতে জায়গায় জায়াগায় ফোলা ভাব দেখা দিতে পারে। স্ট্রেস বা সাধারণ সংক্রমণেও অনেকসময় এমন হতে পারে। লিউকেমিয়ার কারণেই যে ত্বক ফুলে যায়, ব্যাপারটা এমন নয়। তারপরও ঘন ঘন এমন হতে থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না।

৫ ক্ষুধামান্দ্য ও ওজন কমে যাওয়া

লিউকেমিয়ার কারণে খাদ্য হজমে সমস্যা হয়, তা নয়। কিন্তু লিউকেমিয়ার ক্ষেত্রে কিছু ক্যানসার কোষ আছে, যা হজম প্রক্রিয়াকে (মেটাবোলিজমকে) ক্ষতিগ্রস্ত করে। তাই হঠাৎ করে দ্রুত ওজন কমে যেতে পারে। ক্ষুধামান্দ্য বা ওজন হ্রাস নানা কারণেই হতে পারে। তাই নিশ্চিত হতে চিকিৎসকের কাছে যাওয়াই ভালো হবে।

৬ বাম পাঁজরের নিচের দিকে ব্যাথা অনুভব হওয়া

কিছু কিছু ব্লাড ক্যানসারে প্লিহা অস্বাভাবিক বড় হয়ে যায়। এতে করে বুকের পাঁজরের বাম দিকে চামড়ার নিচে ব্যাথা হতে পারে। এমনকি প্লিহা বড় হওয়ার কারণে ঠিকমতো খাওয়া যায় না। অল্পেই পেট ভরার অনুভূতি হয়। তাই এমন উপসর্গ দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৭ রাতে ঘাম হওয়া

রাতে অনেক সময় শরীরের তাপমাত্রা হুট করে বেড়ে যেতে পারে। ফলে দেখা দিতে পারে ঘাম। কারণ, শরীর নিজে নিজেই গরম কমানোর চেষ্টায় ঘাম দিয়ে তাপমাত্রা কমানোর চেষ্টা করে। অনেকসময় ঘুমের মধ্যে গরম লাগা অনুভব না করলেও ঘামে পোশাক ভিজে যাওয়ার কারণে ঘুম ভেঙে যেতে পারে। লিউকেমিয়ার কারণে এমনটা হতে পারে। তাই  রাতে ঘুমের মধ্যে প্রায়ই এমন হলে সতর্ক হতে হবে আপনাকে।

সারাবাংলা/আরএফ 

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন